খেলা

আবারও জমল না ওপেনিং জুটি

জিম্বাবুয়েকে ২৬৫ রানে গুটিয়ে দেওয়ার পর ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মনমতো হয়নি বাংলাদেশের। চতুর্থ ওভারেই ওপেনার সাইফ হাসানকে হারিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে গেছে বাংলাদেশ।

জিম্বাবুয়েকে ২৬৫ রানে গুটিয়ে দেওয়ার পর ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মনমতো হয়নি বাংলাদেশের। চতুর্থ ওভারেই ওপেনার সাইফ হাসানকে হারিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে গেছে বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চ বিরতির আগে ৮ ওভার ব্যাটিং পেয়েছিল বাংলাদেশ। তাতে এসেছে ১ উইকেটে ২৫ রান।

উইকেট ছিল ব্যাট করার জন্য বেশ ভালো। বাংলাদেশ যখন ব্যাটিং তখন কেটে গেছে সকালের আর্দ্রতাও। অনুকূল পরিস্থিতিতেও শুরুটা হয়নি ভালো। পাকিস্তানের বিপক্ষে রাওয়ালপিন্ডি টেস্টেও এই জুটি আনতে পারেনি ভাল শুরু। প্রথম ইনিংসে ৩ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৯ রান এনেছিলেন তারা। এবার তাদের জুটি থেকে এল ১৮ রান।

তামিম ইকবাল-সাইফ হাসান জুটিতে দেখাচ্ছিল আত্মবিশ্বাসী। দারুণ স্ট্রেট ড্রাইভে চার মেরে সাইফ দিচ্ছিলেন ভাল কিছুরই আভাস। কিন্তু খোঁচা মারার রোগ সারেনি। ভিক্টর নায়োচির অনেক বারের বল খোঁচা মেরে ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে।

১৮ রানে প্রথম উইকেট হারানোর পর বাকিটা সময় নাজমুল হোসেন শান্তকে কাটিয়ে দিয়েছেন তামিম।  

এর আগে আবু জায়েদ রাহি আর তাইজুল ইসলামের তোপে ২৬৫ রানে অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে।

আগের দিনের ৬ উইকেটে ২২৮ রান নিয়ে নেমে সকালের সেশনে ৮০ মিনিট টিকতে পারে জিম্বাবুয়ে। ৮ ওভারের স্পেলে দারুণ বল করে ২ উইকেট তুলে নেন রাহি। ইনিংস পান ৭১ রানে ৪ উইকেট। আগের দিনের উইকেট শূন্য থাকা তাইজুল ইসলাম নেন বাকি দুই উইকেট। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

(দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চ বিরতি পর্যন্ত)

জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস:
১০৬.৩ ওভারে ২৬৫ (মাসবাউরে ৬৪, কাসুজা ২, আরভিন ১০৭, টেইলর ১০, সিকান্দার ১৮, মারুমা ৭, চাকাবা ৩০, টিরিপানো ৮, এনলোবো ০, টুসুমা ০, নায়ুচি ৬*; ইবাদত ০/২৬, জায়েদ ৪/৭১, নাঈম ৪/৭০, তাইজুল ২/৯০)

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস:  ৮ ওভারে ২৫/১  (তামিম ব্যাটিং ১০*, সাইফ ৮, শান্ত ব্যাটিং ৫* ;  টিরিপানো ০/১১ , নায়োচি ১/১১, রাজা ০/৩)

Comments

The Daily Star  | English

PM to meet with 14-party partners on Thursday

This would be her first meeting with the partners of AL after the January 7 national poll

16m ago