মঙ্গলবার থেকে শুরু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের দলবদল

গত দুই মৌসুমের প্লেয়ার্স ড্রাফটের নিয়ম থেকে এবার বেরিয়ে এসেছে ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম)। বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ ও ঐতিহ্যবাহী ক্রিকেট আসর ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে আবার শুরু হচ্ছে পুরনো সেই উম্মুক্ত দলবদল। তার শুরুটা হচ্ছে আগামীকাল মঙ্গলবার (৩ মার্চ) থেকে।
Abahani Limited
ফাইল ছবি

গত দুই মৌসুমের প্লেয়ার্স ড্রাফটের নিয়ম থেকে এবার বেরিয়ে এসেছে ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম)। বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ ও ঐতিহ্যবাহী ক্রিকেট আসর ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে আবার শুরু হচ্ছে পুরনো সেই উম্মুক্ত দলবদল। তার শুরুটা হচ্ছে আগামীকাল মঙ্গলবার (৩ মার্চ) থেকে।

মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়ে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত খেলোয়াড়দের দলে টানার কাজ করতে পারবে ক্লাবগুলো। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সিসিডিএম কার্যালয়ে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে দলবদল। এছাড়া জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলা থাকায় সিলেটে অবস্থানরত জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের সুবিধার্থে সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামেও থাকছে একটি ডেস্ক।

উম্মুক্ত দলবদল হলেও নব্বই দশকের মাঝামাঝি থেকে সব দলকে সুবিধা দেওয়ার জন্য যে পুল গঠিত হতো তাও থাকছে না। ফলে নির্দিষ্ট কিছু বড় নামের ক্লাব সুবিধা পাচ্ছে নিঃসন্দেহে। ক্রিকেট পাড়ায় জোর গুঞ্জন এ সুবিধা নিয়ে জাতীয় দলের এক ঝাঁক তারকাকে দলে টানতে যাচ্ছে টানা দুইবারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী লিমিটেড। 

চলতি মৌসুমের দলবদলে ব্যপক পরিবর্তন এসেছে আরও। এ আসরের ইতিহাসে এবারই প্রথম কোনো বিদেশি খেলোয়াড় থাকছে না। শুরুর দিকে কয়েক আসরে বিদেশি খেলোয়াড় না খেললেও কোন বিধিনিষেধ ছিল না। এরপর থেকে সবসময়ই প্রায় প্রতি দলেই খেলেছে বিদেশি খেলোয়াড়রা। কখনো একজন, কখনো দুইজন, আবার কখনো তিনজন। এমনকি চার জনও খেলেছে। কিন্তু এবার কোন বিদেশিই থাকছে না এ লিগে।

নানা ধরণের পরিবর্তন নিয়ে এ আসর মাঠে গড়াবে আগামী ১৫ মার্চ। ওয়ানডে সংস্করণের এ আসর শেষে গতবারের মতো একটি টি-টোয়েন্টি আসরও আয়োজন করবে সিসিডিএম। সুপার লিগে ওঠা দলগুলোকে নিয়ে লিগ শেষ হবে এ টুর্নামেন্ট। ছয় দলের এ আসর হবে লিগ ভিত্তিক। এরপর সরাসরি দুই দলকে নিয়ে ফাইনাল নাকি সেমি-ফাইনাল পদ্ধতিতে খেলবে তা নিশ্চিত করেনি দলটি।

এছাড়া এবার ঢাকার বাইরে হচ্ছে লিগের প্রথম তিন রাউন্ড। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থাকায় খেলা সম্ভব হচ্ছে না। আর বিকেএসপির মাঠ পাওয়া যাচ্ছে না টানা খেলার কারণে। ভালো উইকেট নিশ্চিত করতে কমপক্ষে এক মাসের বিশ্রাম চাই। তা নিশ্চিত করতে আপাতত প্রথম তিন রাউন্ড ঢাকার বাইরে আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিসিডিএম। প্রাথমিকভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচগুলো। আর এ কারণে ক্লাবগুলো যাতায়াত খরচ সম্পূর্ণ বহন করবে বিসিবি।

Comments

The Daily Star  | English