‘দেশের প্রয়োজনে’ ২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার পথ পরিষ্কার করছেন পুতিন

রাশিয়ার প্রয়োজনে ২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার ব্যবস্থা করতে সংবিধানে পরিবর্তন আনছেন দেশটির রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন। তবে তিনি কোনো নির্দিষ্ট সময় নয় দেশটি রাজনৈতিকভাবে ‘পরিণত’ হওয়া পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকতে চান।
Vladimir Putin
রুশ জাতীয় সংসদের নিম্নকক্ষ ‘স্টেট ডুমা’য় ভাষণ দিচ্ছেন রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন। ১০ মার্চ ২০২০। ছবি: রয়টার্স

রাশিয়ার প্রয়োজনে ২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার ব্যবস্থা করতে সংবিধানে পরিবর্তন আনছেন দেশটির রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন। তবে তিনি কোনো নির্দিষ্ট সময় নয় দেশটি রাজনৈতিকভাবে ‘পরিণত’ হওয়া পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকতে চান।

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স গতকাল মঙ্গলবার জানিয়েছে, আগামী ২০২৪ সালে পুতিনের ক্ষমতায় থাকার মেয়াদ শেষ হওয়া আগে দেশটির সংবিধানে বড় ধরনের পরিবর্তন আনার কথা পুতিন জানিয়েছিলেন গত জানুয়ারিতে।

কিন্তু, রুশ জাতীয় সংসদের নিম্নকক্ষ ‘স্টেট ডুমা’য় ভাষণে পুতিন বলেন, ‘বর্তমান রাষ্ট্রপতিসহ যেকোনো মানুষের (ক্ষমতায় থাকার সময়সীমা) তুলে দেওয়া উচিত... নীতিগতভাবে তা তুলে দেওয়াও সম্ভব। তবে একটি শর্ত— সাংবিধানিক আদালত যদি এই পরিবর্তনকে যদি সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক মনে না করে।’

মার্কিন রাষ্ট্রপতি ফ্রাঙ্কলিন ডি রুজভেল্টের উদাহরণ দিয়ে পুতিন আরও বলেন, দেশের প্রয়োজনে তাকে চারবার রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করতে হয়েছিল। রাশিয়াতেও সেই দুর্যোগময় পরিস্থিতি বিরাজমান বলে মনে করেন ইতোমধ্যে চারবার রাষ্ট্রপতির দায়িত্বে থাকা পুতিন।

তিনি মনে করেন, ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের ক্ষতি থেকে উদ্ধার পাওয়ার চেষ্টা এখনো করে যাচ্ছে রাশিয়া।

Comments

The Daily Star  | English

Bangladeshi students terrified over attack on foreigners in Kyrgyzstan

Mobs attacked medical students, including Bangladeshis and Indians, in Kyrgyzstani capital Bishkek on Friday and now they are staying indoors fearing further attacks

3h ago