২৩ রাজ্যে জরুরি অবস্থা, ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা, দেশে ফেরা আমেরিকানদের জন্যে কোয়ারেন্টাইন

ইউরোপের ২৬ দেশের পাশাপাশি বিশ্বের অধিকাংশ দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা দেশগুলো থেকে শুধুমাত্র মার্কিন নাগরিকরাই দেশে ফেরার অনুমতি পাবেন।
Donald Trump
ওভাল অফিস থেকে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ১১ মার্চ ২০২০। ছবি: রয়টার্স

ইউরোপের ২৬ দেশের পাশাপাশি বিশ্বের অধিকাংশ দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা দেশগুলো থেকে শুধুমাত্র মার্কিন নাগরিকরাই দেশে ফেরার অনুমতি পাবেন।

তবে যেকোনো দেশ থেকে ফেরা মার্কিন নাগরিকদের স্ক্রিনিং করা হবে এবং রাখা হবে কোয়ারেন্টাইনে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন আজ বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প ইউরোপের ২৬ দেশের নাগরিকদের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছেন। আমেরিকার স্থানীয় সময় শুক্রবার মধ্যরাত থেকে তা কার্যকর হবে।

সংবাদমাধ্যমটি আরও জানিয়েছে, অধিকাংশ দেশের নাগরিকদের ওপর আমেরিকা ৩০ দিনের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। যেসব মার্কিন নাগরিক বিদেশে থেকে দেশে ফিরবেন তাদেরকে শুধু স্ক্রিনিং করে ছেড়ে দেওয়া হবে না। রাখা হবে কোয়ারেন্টাইনে।

গতকাল জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে ট্রাম্প বলেছেন, ‘এই “বিদেশি ভাইরাস” দেশে আসছে বিদেশি পর্যটকদের মাধ্যমে। বিশেষ করে ইউরোপ থেকে আসা পর্যটকদের মাধ্যমে।”

ওভাল অফিস জানিয়েছে, এই নিষেধাজ্ঞা শুধু বিদেশি নাগরিকদের। বিদেশে থাকা আমেরিকার নাগরিকদের জন্যে নয়।

আমেরিকার ৫০টি রাজ্যের মধ্যে ৪৩ রাজ্যে করোনা রোগী পাওয়া গেছে। দেশটির রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতেও পাওয়া গেছে করোনা রোগী। এর ফলে ওয়াশিংটন ডিসি ও ২৩টি রাজ্যে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Home minister says it's a planned murder

Three Bangladeshis arrested; police yet to find his body

1h ago