শীর্ষ খবর
করোনাভাইরাস

শিক্ষার্থীদের সতর্ক করতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশনা

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় নিয়ে সবাইকে সচেতন ও সতর্ক হতে নির্দেশনা দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।
প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় নিয়ে সবাইকে সচেতন ও সতর্ক হতে নির্দেশনা দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

আজ বৃহস্পতিবার অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ্ স্বাক্ষরিত অফিস আদেশে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ও আক্রান্তদের চিকিৎসা নিশ্চিতে ইতোমধ্যে সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছে। এ বিষয়ে সবার সতর্কতা ও সচেতনতা অবলম্বন করা উচিত। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন সব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নির্দেশনা অনুসরণের জন্য অনুরোধ করা হলো। পাশাপাশি, বিদ্যালয়গুলোতে প্রধান শিক্ষকদের বলা হয়েছে, শিক্ষার্থীদের যাতে নির্দেশনা ও পরামর্শ পাঠ করে শোনানো হয়। একইসঙ্গে তারা যেনো ভাইরাস পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে এবং এটির প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

নির্দেশনা ও পরামর্শে যা রয়েছে

করোনাভাইরাস যেভাবে ছড়ায়:

  • এ ভাইরাস কোনো প্রাণী থেকে মানুষের দেহে ঢুকে থাকে,
  • এখন মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত হয়ে থাকে,
  • করোনাভাইরাস মানুষের ফুসফুসে সংক্রমণ ঘটায়,
  • শ্বাসতন্ত্রের মাধ্যমে (হাঁচি, কাশি, কফ, থুতু) এবং
  • আক্রান্ত ব্যক্তি সংস্পর্শে আসলে একজন থেকে আরেকজনে ছড়ায়,

লক্ষণ:

  • ভাইরাস শরীরে ঢোকার পর সংক্রমণের লক্ষণ দেখা দিতে প্রায় ২-১৪ দিন লাগে,
  • বেশিরভাগ ক্ষেত্রে প্রথম লক্ষণ জ্বর,
  • এছাড়া শুকনো কাশি, গলা ব্যথা হতে পারে; শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়া দেখা দিতে পারে; অন্যান্য অসুস্থতা (ডায়াবেটিস/উচ্চ রক্তচাপ/শ্বাসকষ্ট/হৃদরোগ/কিডনি সমস্যা/ক্যানসার ইত্যাদি) থাকলে অরগ্যান ফেইলিওর বা দেহের বিভিন্ন প্রত্যঙ্গ বিকল হতে পারে।

প্রতিরোধে করণীয়:

ব্যক্তিগত সচেতনতা—

  • ঘন ঘন সাবান ও পানি দিয়ে হাত ধুতে হবে (অন্তত ২০ সেকেন্ড যাবৎ),
  • অপরিষ্কার হাতে চোখ, নাক ও মুখ স্পর্শ করা যাবে না,
  • ইতোমধ্যে আক্রান্ত এমন ব্যক্তিদের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলতে হবে,
  • কাশি শিষ্টাচার মেনে চলতে হবে (হাঁচি/কাশির সময় টিস্যু/কাপড় দিয়ে নাক-মুখ ঢেকে রাখতে হবে);
  • অসুস্থ পশু/পাখির সংস্পর্শ পরিহার করতে হবে,
  • মাছ-মাংস ভালোভাবে রান্না করে খেতে হবে,
  • অসুস্থ হলে ঘরে থাকতে হবে, বাইরে যাওয়া অত্যাবশ্যক হলে নাক-মুখ ঢাকার জন্য মাস্ক ব্যবহার করতে হবে,
  • জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বিদেশে ভ্রমণ করা থেকে বিরত থাকুন এবং প্রয়োজন ছাড়া এ সময়ে বাংলাদেশ ভ্রমণে নিরুত্সাহিত করতে হবে,
  • প্রবাসী আত্মীয়-স্বজনকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাংলাদেশ ভ্রমণে নিরুৎসাহিত করতে হবে,
  • প্রয়োজন ছাড়া যে কোনো জনসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে,
  • অত্যাবশ্যকীয় ভ্রমণে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

সন্দেহভাজন রোগীর ক্ষেত্রে করণীয়:

  • অসুস্থ রোগীকে ঘরে থাকতে বলুন,
  • মারাত্মক অসুস্থ রোগীকে নিকটস্থ হাসপাতালে যেতে বলুন,
  • রোগীকে নাক-মুখ ঢাকার জন্য মাস্ক ব্যবহার করতে বলুন,
  • রোগীর নাম, বয়স, যোগাযোগের পূর্ণ ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর সংরক্ষণ করুন এবং আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুমে (০১৭০০-৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন নম্বরে (০১৯৩৭-১১০০১১, ০১৯৩৭০০০০১১, ০১৯২৭-৭১১৭৮৪, ০১৯২৭-৭১১৭৮৫) যোগাযোগ করুন।
  • করোনাভাইরাস সম্পর্কে ভালোভাবে জানুন এবং অপরকে জানান।

Comments

The Daily Star  | English

Law and order disruption won't be tolerated, DMP commissioner says about quota protests

Addressing the quota reform protesters, Dhaka Metropolitan Police (DMP) Commissioner Habibur Rahman said any attempts to disrupt law and order would not be tolerated

55m ago