ভ্যালেন্সিয়ার ৩৫ শতাংশ খেলোয়াড়-স্টাফ করোনায় আক্রান্ত

দুদিন আগে স্প্যানিশ লা লিগার ক্লাব ভ্যালেন্সিয়া জানিয়েছিল, আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার এজেকিয়েল গ্যারায়সহ তাদের পাঁচ ফুটবলার-স্টাফ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ৪৮ ঘণ্টা না পেরোতেই ভাইরাসটি মহামারি আকার ধারণ করেছে ক্লাবটিতে। খেলোয়াড়, কোচ, কর্মকর্তাসহ দলটির মোট ৩৫ শতাংশের শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে।
ছবি: এএফপি

দুদিন আগে স্প্যানিশ লা লিগার ক্লাব ভ্যালেন্সিয়া জানিয়েছিল, আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার এজেকিয়েল গ্যারায়সহ তাদের পাঁচ ফুটবলার-স্টাফ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ৪৮ ঘণ্টা না পেরোতেই ভাইরাসটি মহামারি আকার ধারণ করেছে ক্লাবটিতে। খেলোয়াড়, কোচ, কর্মকর্তাসহ দলটির মোট ৩৫ শতাংশের শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে।

এক বিবৃতিতে ভ্যালেন্সিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর খেলোয়াড়সহ ভ্যালেন্সিয়ার কোচিং স্টাফদের অনেকেরই কোভিড-১৯ ভাইরাস ধরা পড়েছে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পর ক্লাব গৃহীত কঠোর ব্যবস্থা সত্ত্বেও... সবশেষ ফল জানাচ্ছে, স্কোয়াডের প্রায় ৩৫ শতাংশের (করোনা পরীক্ষায়) পজিটিভ ফল এসেছে। তবে কারোরই এখন পর্যন্ত কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি। সবাই নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন, চিকিৎসকদের পরামর্শ নিচ্ছেন এবং বিশেষভাবে নির্দিষ্ট সময়ে অনুশীলন করছেন।’

গত মাসে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে ইতালিতে গিয়ে আতালান্তার বিপক্ষে খেলেছিল ভ্যালেন্সিয়া। ম্যাচটি সান সিরো স্টেডিয়ামে কানায় কানায় পূর্ণ গ্যালারির সামনে অনুষ্ঠিত হয়। তখনও ইতালিতে ফুটবলের ওপর ততটা জোরালো বিধি-নিষেধ জারি হয়নি। যদিও ইউরোপের মধ্যে তখন একমাত্র ইতালিতেই করোনাভাইরাস ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছিল। সে সফরই হয়তো কাল হয়েছে ভ্যালেন্সিয়ার জন্য। এরপর স্পেনের প্রথম ফুটবলার হিসেবে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন ক্লাবটির আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার গ্যারায়।

আরও পড়ুন: করোনা কেড়ে নিল স্প্যানিশ ফুটবল কোচের প্রাণ

গতকালই স্পেনের মালাগার অ্যাতলেতিকো পোর্তাদা আলতার কোচ ফ্রানসিস্কো গার্সিয়া মারা গেছেন। দুরারোগ্য ব্যাধি লিউকোমিয়ায় আক্রান্ত হওয়ায় করোনার সঙ্গে লড়াইয়ে জিততে পারেননি তিনি। কোচ হিসেবে বিশ্বজয়ের স্বপ্ন দেখা গার্সিয়াকে মাত্র ২১ বছর বয়সেই থেমে যেতে হয়েছে।

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালির পর স্পেনে করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে সবচেয়ে বেশি। এরই মধ্যে দেশটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। সবমিলিয়ে স্পেনে এখন পর্যন্ত মোট ৩৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৪৮ জন। আর আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ৯৪২ জনে পৌঁছেছে।

Comments

The Daily Star  | English

Battery-run rickshaw drivers set fire to police box in Kalshi

Battery-run rickshaw drivers set fire to a police box in the Kalshi area this evening following a clash with law enforcers in Mirpur-10 area

1h ago