পিপিইর দাবিতে সিলেটে এক হাসপাতালে শিক্ষানবিশ চিকিৎসকদের কর্মবিরতি

ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) ছাড়া দায়িত্ব পালন করতে অপারগতা প্রকাশ করে কর্মবিরতি পালন করছেন সিলেটের জালালাবাদ রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (জেআরআরএমসি) শিক্ষানবিশ চিকিৎসক।
স্টার ফাইল ছবি

ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) ছাড়া দায়িত্ব পালন করতে অপারগতা প্রকাশ করে কর্মবিরতি পালন করছেন সিলেটের জালালাবাদ রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (জেআরআরএমসি) শিক্ষানবিশ চিকিৎসক।

সোমবার সকাল থেকে শুরু হওয়া ১৫০ শিক্ষানবিশ চিকিৎসকের কর্মবিরতি মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত গড়িয়েছে।

আন্দোলনকারীরা আজ মঙ্গলবার মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষের কাছে তিন দফা দাবি পেশ করেছেন। দাবির মধ্যে রয়েছে, হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী সবাইকে পিপিই সরবরাহ করতে হবে; সেবায় নিয়োজিত কেউ করোনাভাইরাসে সংক্রমিত সন্দেহ হলে তার দায়দায়িত্ব হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নিতে হবে এবং রোগীর সঙ্গে হাসপাতালে আসা দর্শনার্থী নিয়ন্ত্রণ করতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বিশেষ উদ্যোগ নিতে হবে।

সিলেটের প্রথম বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটিতে প্রতিদিন গড়ে ছয় হাজারেরও বেশি মানুষ চিকিৎসাসেবা নেন।

সারাবিশ্বে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর এ হাসপাতালে ডাক্তারদের সুরক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে সপ্তাহখানেক আগে থেকে হাসপাতাল ও কলেজ কর্তৃপক্ষকে পিপিইর চাহিদার কথা জানান শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা। তাদের বাদ দিয়ে সম্প্রতি জ্যেষ্ঠ ডাক্তারদের পিপিই সরবরাহ করা হলে কর্মবিরতির ঘোষণা দেওয়া হয় বলে জানান কয়েকজন শিক্ষানবিশ চিকিৎসক।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে হাসপাতালটির উপপরিচালক ডা. আরমান আহমেদ শিপলু বলেন, ‘দেশের সব হাসপাতালে পিপিই স্বল্পতা রয়েছে। এর মধ্যে আমরা যে কয়টি পিপিই বিভিন্নভাবে পেয়েছি, তা করোনাভাইরাসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের দেওয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, সরকারি নির্দেশ মোতাবেক সবকটি হাসপাতালের মতো এখানেও করোনাভাইরাস এর লক্ষণ নিয়ে যারা আসছেন, তাদের জন্য আলাদা কর্নার করা হয়েছে, যেখানে সেবাপ্রদানকারীদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা প্রয়োজন।

তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আরও পিপিই সংগ্রহের চেষ্টা করছে এবং শিক্ষানবিশ ডাক্তারদের দাবি মেনে নিয়ে দ্রুত সমস্যাটি সমাধানের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Sajek accident: Death toll rises to 9

The death toll in the truck accident in Rangamati's Sajek increased to nine tonight

54m ago