করোনায় নারীর তুলনায় পুরুষের মৃত্যু ঝুঁকি বেশি?

নতুন পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, করোনাভাইরাস নারীদের তুলনায় পুরুষদের জন্যে বেশি ভয়ঙ্কর।
France corona
প্যারিসের একটি রেল স্টেশন। ১৭ মার্চ ২০২০। ছবি: রয়টার্স

নতুন পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, করোনাভাইরাস নারীদের তুলনায় পুরুষদের জন্যে বেশি ভয়ঙ্কর।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও চীনের বিজ্ঞানীদের বরাত দিয়ে সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের দ্য টেলিগ্রাফ পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সন্দেহভাজন করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ১ দশমিক ৭ শতাংশ নারী এবং ২ দশমিক ৮ শতাংশ পুরুষ মারা যেতে পারে।

‘বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে, করোনায় নারীদের তুলনায় পুরুষদের মৃত্যুর আশঙ্কা বেশি’ এই শিরোনামের টেলিগ্রাফ প্রতিবেদনটিতে আরও বলা হয়েছে, যারা নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তাদের মধ্যে ৪ দশমিক ৭ শতাংশ পুরুষের জন্যে ভাইরাসটি ভয়ঙ্কর। সেই তুলনায় এটি ভয়ঙ্কর ২ দশমিক ৮ শতাংশ নারীর জন্যে।

বিশেষজ্ঞদের কারো কারো মতে, পুরুষদের মধ্যে ধুমপান ও অ্যালকোহলের গ্রহণের হার বেশি বলে এমনটি হতে পারে। আবার কারো কারো মতে, পুরুষদের মধ্যে হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসের হার বেশি হওয়ায় তারা নারীদের তুলনায় বেশি করোনা ঝুঁকিতে আছেন।

‘কেন করোনাভাইরাস নারীদের তুলনায় পুরুষদের জন্যে বেশি ভয়ঙ্কর’ শিরোনামে যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমসের এক প্রতিবেদনে গত ২১ মার্চ বলা হয়েছে, ‘ইতালির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে ১২ মার্চ পর্যন্ত পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি নারীদের তুলনায় কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে যে সংখ্যক পুরুষ হাসপাতালে ভর্তি আছেন তাদের মধ্যে ৭৫ শতাংশর মারা যাওয়ার ঝুঁকি বেশি।

একই ধরনের পরিসংখ্যান চীন, দক্ষিণ কোরিয়াসহ বিভিন্ন দেশে দেখা যাচ্ছে বলেও প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চীনের কোভিড-১৯ আক্রান্তদের নিয়ে করা এক পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সংক্রমিতদের মধ্যে ৬০ শতাংশ পুরুষ। চীনের রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের তথ্য মতে, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে নারীদের তুলনায় পুরুষদের মৃত্যু হার ৬৫ শতাংশ বেশি।

একই অবস্থা ১৬ বছরের নিচের শিশুদের ক্ষেত্রেও। উহানের শিশু হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া কোভিড-১৯ আক্রান্ত ১৭১ জন শিশুর মধ্যে ৬১ শতাংশ ছেলে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনা আক্রান্তদের মধ্যে প্রায় ৬২ শতাংশ পুরুষ। দেশটিতে মোট আক্রান্তদের মধ্যে নারীদের তুলনায় পুরুষদের মৃত্যুহার ৮৯ শতাংশ বেশি।

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, নারীর তুলনায় পুরুষের বেশি ধূমপান করা ও বেশি অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপনের কারণে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাচ্ছে।

ধূমপান ফুসফুসকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। এছাড়াও, পুরুষের তুলনায় নারীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি হতে পারে বলেও জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

লস এঞ্জেলেস টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওকলাহোমা মেডিকেল রিসার্চের ইমিউনোলজিস্ট সুসান কোভাতস বলেছেন, ‘গবেষকরা প্রমাণের জন্য কোভিড-১৯ এর রেকর্ড দেখছেন। পুরুষের তুলনায় নারীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এ ক্ষেত্রে বেশি কার্যকর হতে পারে। যদি এই ‘সহজাত’ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা পুরুষের তুলনায় নারীদের মধ্যে বেশি শক্তিশালী হয়ে থাকে তাহলে সংক্রমিত নারীরা ভাইরাসের ক্ষতিকর প্রভাব কমিয়ে ফেলতে পারেন।’

ইউসি ডেভিসের ফুসফুসবিষয়ক গবেষক কেন্ট ই পিঙ্কারটন বলেন, ‘নারীদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা পুরুষদের তুলনায় ভালো কাজ করছে জেনে আমি মোটেই অবাক হইনি। বহু বছর ধরে ইমিউনোলজিস্টরা কেবল পুরুষদের নিয়ে গবেষণা করছিলেন। কারণ, নারীর হরমোনের ভিন্নতা তাদের গবেষণার ফলাফলকে জটিল করে তুলছিল।’

চলতি মাসের শুরুর দিকে বিবিসিকে এক সাক্ষাৎকারে যুক্তরাজ্যের ইস্ট অ্যাঙ্গলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক পল হান্টার বলেন, ‘প্রকৃতিগতভাবেই পুরুষের তুলনায় নারীর রয়েছে ভিন্নমাত্রার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। পুরুষদের তুলনায় নারীদের দেহে ফ্লুর প্রতিরোধক অ্যান্টিবডি বেশি তৈরি হয়। এর অনেক প্রমাণ আমাদের কাছে আছে।’

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles running amok

The bus involved in yesterday’s accident that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not caved in to transport associations’ demand for allowing over 20 years old buses on roads.

8h ago