‘বেতন কমানো নিয়ে আপত্তি’ প্রসঙ্গে বার্সাকে একহাত নিলেন মেসি

করোনাভাইরাসের কারণে বার্সেলোনার আয়ে বিরূপ প্রভাব পড়ায় বেতনের ৭০ শতাংশ ছেড়ে দিতে সম্মত হয়েছেন দলটির খেলোয়াড়রা। কিন্তু কয়েকদিন আগেই স্প্যানিশ গণমাধ্যমে খবর এসেছিল, ক্লাবের এই পরিমাণ বেতন কমানোর প্রস্তাবে আপত্তি তুলেছেন লিওনেল মেসিরা। এমন অভিযোগে বেশ অবাক হয়েছেন বার্সা অধিনায়ক। নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করার পাশাপাশি ক্লাবের একটা অংশের উপর ক্ষোভ ঝেড়েছেন তিনি।
ছবি: এএফপি

করোনাভাইরাসের কারণে বার্সেলোনার আয়ে বিরূপ প্রভাব পড়ায় বেতনের ৭০ শতাংশ ছেড়ে দিতে সম্মত হয়েছেন দলটির খেলোয়াড়রা। কিন্তু কয়েকদিন আগেই স্প্যানিশ গণমাধ্যমে খবর এসেছিল, ক্লাবের এই পরিমাণ বেতন কমানোর প্রস্তাবে আপত্তি তুলেছেন লিওনেল মেসিরা। এমন অভিযোগে বেশ অবাক হয়েছেন বার্সা অধিনায়ক। নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করার পাশাপাশি ক্লাবের একটা অংশের উপর ক্ষোভ ঝেড়েছেন তিনি।

সোমবার সন্ধ্যায় নিজস্ব ওয়েবসাইটে এক বিবৃতি দিয়ে বেতন কমানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা। তারা বলেছে, ‘চলমান ক্রান্তিকালে বার্সেলোনার সব ধরনের পেশাদার স্কোয়াডের খেলোয়াড়দের সঙ্গে বোর্ডের একটি চুক্তি হয়েছে। তাতে তারা বেতন-ভাতা কম নেওয়ার ব্যাপারে রাজি হয়েছেন।’

কেবল বার্সেলোনার ফুটবল দলই নয়, বাস্কেটবলসহ ক্লাবের সব ধরনের পেশাদার দলের খেলোয়াড়রাই বেতন কাটার প্রস্তাবে রাজি হয়েছেন। করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট সংকটে ক্লাবের অন্যান্য কর্মচারীরা যেন সঠিক সময়ে শতভাগ পারিশ্রমিক পান, তা নিশ্চিত করতেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আর্জেন্টাইন তারকা ফরোয়ার্ড মেসিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে তিনি বলেছেন, কারও চাপে নয়, স্বেচ্ছায়ই বেতন কমানোর প্রস্তাবে সাড়া দিয়েছেন তারা। আপত্তি তোলার অভিযোগও উড়িয়ে দিয়েছেন রেকর্ড ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী ৩৩ বছর বয়সী তারকা।

‘ঘটনার গভীরে যাওয়ার আগে, প্রথমেই আমরা পরিষ্কার করতে চাই যে, নিজেদের বেতন কমানোর ব্যাপারে আমরা সবসময়ই আগ্রহী ছিলাম। কারণ, আমরা ভালোভাবে বুঝতে পারছি যে, আমরা একটা বিশেষ পরিস্থিতির মধ্যে আছি। ক্লাব যখনই জিজ্ঞাসা করুক না কেন, আমরা খেলোয়াড়রা সবসময়ই তাদেরকে সাহায্য করতে প্রস্তুত।’

‘এটা আমাদেরকে অবাক না করে পারছে না যে, ক্লাবের মধ্যেই এমন কিছু লোক আছে, যারা আমাদের আতশ কাঁচের নিচে ফেলতে চায় আর এমন কিছু করার জন্য চাপ দিতে চেষ্টা করে, যা আমরা করব বলে আগে থেকেই জানতাম।’

‘এতক্ষণ পর্যন্ত আমরা কথা বলিনি কারণ, ক্লাবকে সাহায্য করতে একটি সমাধান খুঁজে বের করাকে আমরা অগ্রাধিকার দিয়েছি এবং এই পরিস্থিতিতে কারা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তা বুঝতে চেয়েছি।’

‘আমাদের পক্ষ থেকে এখন এটা বলার মুহূর্ত এসে গেছে যে, এই জরুরি পরিস্থিতিতে আমাদের বেতনের ৭০ শতাংশ কেটে নেওয়া হচ্ছে। কর্মচারীরা যেন শতভাগ বেতন পান সেজন্য ক্লাবকে সাহায্য করে যাব আমরা।’

Comments

The Daily Star  | English

Biden expects Iran to attack Israel soon, warns: 'Don't'

US President Joe Biden on Friday said he expected Iran to attack Israel "sooner, rather than later" and warned Tehran not to proceed

1h ago