কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন, পুড়েছে ঘরসহ ২৫টি স্থাপনা

কক্সবাজারের টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুনে ঘরবাড়িসহ অন্তত ২৫টি স্থাপনা পুড়ে গেছে। আহত হয়েছে শিশুসহ বেশ কয়েকজন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
ছবি: সংগৃহীত

কক্সবাজারের টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুনে ঘরবাড়িসহ অন্তত ২৫টি স্থাপনা পুড়ে গেছে। আহত হয়েছে শিশুসহ বেশ কয়েকজন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বুধবার বেলা ২টার দিকে হোয়াইক্যং উনছিপ্রাংয়ের ২২নং রইক্ষ্যং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে রেলিগেশন-১ পয়েন্ট এলাকায় এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।

আগুনে লার্নিং সেন্টার, চাকমা ও রোহিঙ্গাদের বসতঘর, দোকান ও ক্লিনিকসহ ২৫টি স্থাপনা পুড়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, পুটিবনিয়া রোহিঙ্গা শিবিরের পশ্চিম ব্লকে একটি আইআরসি অফিস থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। আগুন দ্রুত ব্লকে ছড়িয়ে পড়ে। একটার সাথে একটা লাগোয়া ঘর হওয়ায় মুহূর্তে আগুন ছড়িয়ে যায়।

ফায়ার সার্ভিস ও ক্যাম্প প্রশাসনের প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।  

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, আইআরসি অফিসের শর্ট সার্কিট কিংবা সিগারেটের আগুন থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। 

হোয়াইক্যং রোহিঙ্গা ক্যাম্প ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান মো. রফিক বলেন, ক্যাম্পে ২০ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা আছেন। আগুনে ক্যাম্পের স্কুলসহ ২৫টি মতো ঘরে পুড়ে গেছে। তার মধ্যে স্থানীয় চাকমাদেরও কয়েকটি ঘর আছে।

হোয়াইক্যং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমদ আনোয়ারী বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোকে নগদ ১ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, ক্ষতিগ্রস্তদের অন্যত্র থাকার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে। পুড়ে যাওয়া ঘরগুলো পুনরায় নির্মাণ করে দেওয়া হবে। রোহিঙ্গা শিবিরগুলোতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

 

Comments

The Daily Star  | English
Dhaka Airport Third Terminal: 3rd terminal to open partially in October

HSIA’s terminal-3 to open in Oct

The much anticipated third terminal of the Dhaka airport is likely to be fully ready for use in October, enhancing the passenger and cargo handling capacity.

5h ago