এখনই হজ পালনের পরিকল্পনা নয়, পরামর্শ সৌদি সরকারের

সৌদি আরব সরকার গতকাল বুধবার চলতি বছরের হজ পরিকল্পনা তৈরি করতে আরও অপেক্ষা করার আহ্বান জানিয়েছে। কিন্তু, বাংলাদেশ হজের প্রস্তুতি এগিয়ে রাখতে চায়।
জনশূন্য কাবা। ছবি: রয়টার্স, ফাইল ফটো

সৌদি আরব সরকার গতকাল বুধবার চলতি বছরের হজ পরিকল্পনা তৈরি করতে আরও অপেক্ষা করার আহ্বান জানিয়েছে। কিন্তু, বাংলাদেশ হজের প্রস্তুতি এগিয়ে রাখতে চায়।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নুরুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘আমরা সৌদি সরকারের ঘোষণা শুনেছি। তবে আমরা চলতি বছরের হজ নিয়ে আমাদের প্রস্তুতি চালিয়ে যাব। এ বছর হজ না হলে হজ যাত্রীদের অর্থ ফেরত দেওয়া হবে।’

সৌদি হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রী মুহাম্মদ সালেহ বিন তাহের বাতেন গতকাল রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলেছিলেন, সৌদি আরব সকল মুসলমান ও নাগরিকের নিরাপত্তার জন্য প্রস্তুত। তিনি বলেন, ‘পরিস্থিতি পরিবর্তন না হওয়া পর্যস্ত মুসলিমদের পবিত্র হজ পালনের প্রস্তুতি নিতে অপেক্ষায় থাকার পরামর্শ দিচ্ছি আমরা। এ কারণেই আমরা সারা বিশ্বের মুসলমানদের (ট্যুর অপারেটরদের সঙ্গে) এখনই কোনো চুক্তি না করার অনুরোধ করেছি।’

করোনা সংক্রমণ রোধ করার জন্য ফেব্রুয়ারিতে দেশটির সরকার মক্কা ও মদিনা বিদেশীদের জন্য বন্ধ করে দেওয়ার নজির বিহীন সিদ্ধান্ত নেয়। ১৯১৮ সালের ফ্লু মহামারী চলাকালীন বিশ্বব্যাপী কয়েক মিলিয়ন মানুষের প্রাণহানির সময়ও এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

দেশটিতে এক হাজার ৫০০র বেশি কোভিড-১৯ সংক্রমিত নিশ্চিত হওয়ায় বিধিনিষেধ আরও কঠোর করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশটিতে ১৬ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। মধ্যপ্রাচ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৭১ হাজারেরও বেশি মানুষ এবং মারা গেছেন তিন হাজার ৩০০ এর বেশি। যার বেশিরভাগই ইরানে।

সৌদি আরব মক্কা ও মদিনাসহ তিনটি বড় শহরে প্রবেশ বা বের হওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা এবং সারাদেশে রাতে কারফিউ আরোপ করেছে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো সৌদি আরবও অভ্যন্তরীণ ও বৈদেশিক সকল ফ্লাইট বাতিল করেছে।

বাংলাদেশের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব জানান, এ বছর এখন পর্যন্ত মাত্র ৫০ হাজার নিবন্ধন হয়েছে হজের জন্য।

তিনি বলেন, ‘অন্যান্য বছর এমন সময় আমরা বাড়ি ভাড়া, রেজিস্ট্রেশন, টিকেট এবং অন্যান্য সব কাজ প্রায় শেষ করে ফেলি। তবে এ বছর করোনাভাইরাসের প্রভাবের কারণে প্রক্রিয়াটি অস্বাভাবিক ধীর গতিতে চলছে। প্রয়োজনে আমাদের হজ নিবন্ধনের সময়সীমা আরও বাড়িয়ে দিতে হবে।’

এ বছর মোট এক লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ জন বাংলাদেশীর হজ পালন করতে যাওয়ার কথা ছিল।

(সংক্ষেপিত, পুরো প্রতিবেদনটি পড়তে এই Defer hajj plans this year লিংকে ক্লিক করুন)

Comments

The Daily Star  | English

Hasina, Jaishankar for advancing India-Bangladesh partnership

Prime Minister Sheikh Hasina today called for sustained dialogues between Bangladesh and India to exchange ideas and experiences to help overcome the challenges in their journey towards economic development

44m ago