২৪ বছর বয়সেও নামা যাবে অলিম্পিক ফুটবলে

করোনাভাইরাসের কারণে এক বছর পিছিয়ে যাওয়া টোকিও অলিম্পিকে ২৪ বছর বয়সী ফুটবলাররাও খেলতে পারবে। এমন সিদ্ধান্তই নিয়েছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি।

এক সময় জাতীয় দলের খেলোয়াড়রাই অলিম্পিক ফুটবলে অংশ নিতেন। ১৯৯২ সালে বার্সেলোনা অলিম্পিক থেকে বয়সসীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। তখন থেকেই অনূর্ধ্ব-২৩ দল খেলানোর নিয়ম চলছে। তবে করোনাভাইরাসের কারণে এক বছর পিছিয়ে যাওয়া টোকিও অলিম্পিকে ২৪ বছর বয়সী ফুটবলাররাও খেলতে পারবে। এমন সিদ্ধান্তই নিয়েছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি।

১৯৯২ সালে সব খেলোয়াড়ের বয়স বাধ্যতামূলকভাবে অনূর্ধ্ব-২৩ বছর করা হলেও পরের আসরে তাতে কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়। ১৯৯৬ সালের আটলান্টা অলিম্পিক থেকে ২৩ বছরের বেশি সর্বোচ্চ তিন জন খেলোয়াড় নিয়ে দল গঠনের বিধান চালু করা হয়। তবে আগামী বছর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টোকিও অলিম্পিকে প্রথমবারের মতো কোনো দলের সব খেলোয়াড়ের বয়স ২৪ বছর দেখা গেলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

মূলত বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের প্রকোপে অলিম্পিক এক বছর পিছিয়ে যাওয়াতেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কারণ, যে সকল খেলোয়াড় এ বছর খেলতেন, তাদের অনেকেই আগামী বছর বয়সের বাধ্যবাধকতার কারণে খেলতে পারবেন না। তাতে অনেক দলকে দল গঠনে পড়তে হতো বিপাকে। পাশাপাশি প্রতিযোগিতার জৌলুস ধরে রাখতেও এমন ঘোষণা এসেছে।

অর্থাৎ ১৯৯৭ সালের ১ জানুয়ারি বা তার পরে যাদের জন্ম, তারা টোকিও অলিম্পিকের ফুটবলে নিজ নিজ দলের প্রতিনিধিত্ব করতে পারবেন। আর ফিফা ব্যুরো থেকেও এই সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়া হয়েছে। আর স্বাভাবিকভাবেই তিন জন বেশি বয়সী (২৩ এর উপরে যেকোনো বয়সের) খেলোয়াড় খেলানোর নিয়মও থাকছে।

আগামী বছরের ২৩ জুলাই থেকে জাপানে শুরু হবে টোকিও অলিম্পিক। প্রথম দিন থেকেই শুরু হয়ে যাবে ফুটবলে সোনা জয়ের প্রতিযোগিতা।

Comments

The Daily Star  | English

Iran attacks: Israel may not act rashly

US says Israel's response would be unnecessary; attack likely to dispel murmurs in US Congress about curbing weapons supplies to Israel because of Gaza

1h ago