শতভাগ নিরাপদ না হলে লিগ শুরু না করার অনুরোধ ফিফা প্রধানের

করোনাভাইরাসের কারণে পৃথিবীর প্রায় সব ফুটবল লিগই বন্ধ। তাতে বন্ধ লিগ ও ক্লাবগুলোর আয়ের পথ। উল্টো কোচ, খেলোয়াড় ও অন্যান্য স্টাফদের বেতন দিতে গিয়ে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে ক্লাবগুলো। তাই এ পরিস্থিতির মাঝেই মাঠে খেলা গড়ানোর উপায় খুঁজছে বিভিন্ন দেশের লিগ কমিটি। কিন্তু তাড়াহুড়া না করে পরিস্থিতি শতভাগ ঠিক না হওয়ার আগ পর্যন্ত কোনো লিগ চালু না করার অনুরোধ জানিয়েছেন ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।
ছবি: এএফপি

করোনাভাইরাসের কারণে পৃথিবীর প্রায় সব ফুটবল লিগই বন্ধ। তাতে বন্ধ লিগ ও ক্লাবগুলোর আয়ের পথ। উল্টো কোচ, খেলোয়াড় ও অন্যান্য স্টাফদের বেতন দিতে গিয়ে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে ক্লাবগুলো। তাই এ পরিস্থিতির মাঝেই মাঠে খেলা গড়ানোর উপায় খুঁজছে বিভিন্ন দেশের লিগ কমিটি। কিন্তু তাড়াহুড়া না করে পরিস্থিতি শতভাগ ঠিক না হওয়ার আগ পর্যন্ত কোনো লিগ চালু না করার অনুরোধ জানিয়েছেন ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।

সারা বিশ্বে ক্রমেই করোনাভাইরাসের প্রভাব বেড়ে চলেছে। প্রায় সব দেশেই এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে দিন দিন। পরিস্থিতি যে ভাবে আগাচ্ছে তাতে চলতি মৌসুম ভণ্ডুল হওয়ার পথে। কিন্তু এমনটা হলে বিশাল ক্ষতির সামনে পড়বে ক্লাবগুলো। যদিও এরমধ্যেই অনেক ক্লাব খেলোয়াড়দের বেতন ভাতা কাটার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাতেও আর্থিক সঙ্কট এড়ানো যথেষ্ট হচ্ছে না। এর মধ্যেই বুন্দাস লিগার দলগুলো লিগ আয়োজনের চিন্তা করছে। ক্লাবগুলো অনুশীলনও শুরু করেছে।

কিন্তু এ মুহূর্তে লিগ শুরু করা আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত হবে বলে মনে করেন ফিফা প্রেসিডেন্ট। এক বিবৃতিতে ইনফান্তিনো বলেছেন, 'আমাদের প্রথম অগ্রাধিকার, আমাদের নীতি, যা আমরা আমাদের প্রতিযোগিতার জন্য ব্যবহার করব এবং সবাইকে অনুসরণ করতে উত্সাহিত করব তা হল সবার আগে স্বাস্থ্য। এ জন্য যথেষ্ট চাপ দিতে পারি না। কোনো খেলা, প্রতিযোগিতা, লিগের জন্য একজন মানুষের জীবনও ঝুঁকিতে ফেলা ঠিক নয়। সবার এই জিনিসটা পরিষ্কারভাবে মাথায় রাখা উচিত।'

আর্থিক ঘাটতির জন্য অবশ্য লিগগুলোর সাহায্যে এগিয়ে আসবে ফিফা। জরুরি তহবিলের জন্য দুইশ সত্তর কোটি ডলার দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ফিফা প্রেসিডেন্ট। তাই শতভাগ নিরাপদ পৃথিবী নিশ্চিত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করার অনুরোধ জানিয়েছেন ইনফান্তিনো, 'পরিস্থিতি শতভাগ নিরাপদ না হওয়ার আগে প্রতিযোগিতা পুনরায় শুরু করা হবে দায়িত্বজ্ঞানশূন্যের চেয়ে বেশি কিছু। আমাদের যদি আরও সময় অপেক্ষা করতে হয়, আমরা অবশ্যই তা করব। ঝুঁকি নেওয়ার চেয়ে অপেক্ষা করা উত্তম।'

Comments

The Daily Star  | English

Schools to remain shut till April 27 due to heatwave

The government has decided to keep all public primary and secondary schools closed from April 21 to April 28 due to the severe heatwave sweeping the country

12m ago