লা লিগা শুরু না হলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সুযোগ পাবে না অ্যাতলেতিকো!

করোনাভাইরাসের কারণে স্পেন তথা গোটা বিশ্বে সব ধরনের ফুটবল লিগ স্থগিত হয়ে আছে। তবে আর্থিক ঘাটতি কমাতে মৌসুমের বাকি খেলা মাঠে গড়ানোর জোর চেষ্টা চালাচ্ছে রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন (আরএফইএফ)। এ নিয়ে দফায় দফায় আলোচনাও হয়েছে স্প্যানিশ ফুটবলার্স অ্যাসোসিয়েশন (এএফই) ও লা লিগার সঙ্গে। কিন্তু সুরাহা করতে পারেনি। ফলে মৌসুম বাতিল হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। আর এমনটা হলে আগামী মৌসুমে কারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলবে তার একটি খসড়া তৈরি করেছে আরএফইএফ।
ছবি: এএফপি

করোনাভাইরাসের কারণে স্পেন তথা গোটা বিশ্বে সব ধরনের ফুটবল লিগ স্থগিত হয়ে আছে। তবে আর্থিক ঘাটতি কমাতে মৌসুমের বাকি খেলা মাঠে গড়ানোর জোর চেষ্টা চালাচ্ছে রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন (আরএফইএফ)। এ নিয়ে দফায় দফায় আলোচনাও হয়েছে স্প্যানিশ ফুটবলার্স অ্যাসোসিয়েশন (এএফই) ও লা লিগার সঙ্গে। কিন্তু সুরাহা করতে পারেনি। ফলে মৌসুম বাতিল হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। আর এমনটা হলে আগামী মৌসুমে কারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলবে তার একটি খসড়া তৈরি করেছে আরএফইএফ।

স্পোর্টসভিত্তিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ইএসপিএনের সংবাদ অনুযায়ী, লা লিগা আর মাঠে না গড়ালে শীর্ষে থাকা পয়েন্ট তালিকার চারটি ক্লাব অংশ নেবে পরের মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে। সে হিসেবে সুযোগ পাবে বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, সেভিয়া ও রিয়াল সোসিয়েদাদ। কপাল পুড়বে অন্যতম শক্তিশালী দল অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের। কারণ বর্তমান পয়েন্ট তালিকা অনুযায়ী ছয় নম্বর স্থানে রয়েছে তারা। সেক্ষেত্রে তাদের খেলতে হবে ইউরোপা লিগে।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় কারা খেলবে তা নির্ধারিত হলেও লা লিগার চ্যাম্পিয়ন কোন দল হবে এমন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। মৌসুম শুরু না করা গেলে শেষ দিকে পয়েন্ট টেবিল অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে স্প্যানিশ গণমাধ্যম। যদিও ফুটবল ফের মাঠে গড়াবে বলে আশাবাদী লা লিগা কর্তৃপক্ষ।

পয়েন্ট টেবিল অনুযায়ী, ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে বার্সেলোনা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা রিয়ালের পয়েন্ট ৫৬। ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে সেভিয়া। তবে চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে থাকা রিয়াল সোসিয়েদাদ ও গেটাফের পয়েন্ট সমান ৪৬। গোল করার দিক দিয়ে এগিয়ে থাকায় সুযোগ পাবে সোসিয়েদাদ। মূলত গেটাফে-সোসিয়েদাদের দ্বিতীয় লেগের খেলা বাকি থাকায় হেড টু হেডের বদলে স্থান নির্ধারণ হবে বেশি গোলের হিসেবে।

ইউরোপা লিগে তিনটি স্প্যানিশ দল খেলার সুযোগ পায়। লিগের পঞ্চম ও ষষ্ঠ দলের সঙ্গে সুযোগ মেলে কোপা দেল রে জয়ী ক্লাবটির। তবে কোপা দেল রেও শেষ না হলে জায়গা পাবে অ্যাথলেটিক বিলবাও। কারণ অপর ফাইনালিস্ট সোসিয়েদাদ চার নম্বরে থাকায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সুযোগ পাবে।

লা লিগা কর্তৃপক্ষ লিগ শুরুর করার পথ খুঁজে যাচ্ছে। দিন দশেক আগে এএফই ও লা লিগার সঙ্গে আরএফইএফর আলোচনায় খেলা আবার চালু হলে প্রতি ৭২ ঘণ্টা অন্তর অন্তর লা লিগার দলগুলো একটি করে ম্যাচ খেলবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। ক্লাবগুলো যাতে অনুশীলনের সুযোগ পায় সে ব্যাপারেও চেষ্টাও চালাচ্ছে তারা।

Comments

The Daily Star  | English
Dhaka brick kiln

Dhaka's toxic air: An invisible killer on the loose

Dhaka's air did not become unbreathable overnight, nor is there any instant solution to it.

13h ago