মেসির লেভেলে পৌঁছাতে পারেনি রোনালদো: ব্যাকহাম

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক ইংলিশ তারকা ডেভিড ব্যাকহাম কোনো দ্বিধায় ভোগেননি। রাখঢাক না করেই মেসিকে সেরা বলেছেন তিনি।
ফাইল ছবি: এএফপি

কে সেরা? লিওনেল মেসি না ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো? প্রশ্নের উত্তর দিতে দ্বিধায় পড়ে যান প্রায় সব ফুটবল বোদ্ধা। তবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক ইংলিশ তারকা ডেভিড ব্যাকহাম কোনো দ্বিধায় ভোগেননি। রাখঢাক না করেই মেসিকে সেরা বলেছেন তিনি। আর সময়ের সেরা এই দুই তারকাকে অন্য সবার চেয়ে এগিয়ে রেখেছেন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক।

গত এক যুগেরও বেশি সময় সময় ধরে ফুটবল বিশ্বে রাজত্ব করে যাচ্ছেন মেসি ও রোনালদো। দুজনে মিলে ব্যালন ডি’অর জিতেছেন ১১টি। মেসি জিতেছেন রেকর্ড ছয়বার। রোনালদোর দখলে পাঁচটি। তাই স্বাভাবিকভাবেই তাদের দ্বৈরথ ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে চর্চিত বিষয়ের একটি।

সম্প্রতি আর্জেন্টাইন সংবাদ এজেন্সি তেলামকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মেসিকে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় হিসেবে উল্লেখ করেছেন ব্যাকহাম, ‘মেসি যে ধরনের খেলোয়াড়, সেখানে সে একাই আছে। অন্য কারো পক্ষে তার সমপর্যায়ের হওয়া সম্ভব না। খেলোয়াড় হিসেবে তার মতো কেউ নেই।’

এমনটা বলার পর স্বাভাবিকভাবেই উঠে আসে রোনালদোর প্রসঙ্গ। তার উত্তরও দিয়েছেন সাবেক ইংলিশ ফুটবলার, ‘রোনালদো এখনও মেসির লেভেলে পৌঁছাতে পারেনি, তবে অন্যদের চেয়ে এগিয়ে আছে। তাদের দুজনের মেধা ও টেকনিকে অনেক মিল আছে। এটা সত্যিই খুব দারুণ ব্যপার যে, তারা দুজন একই সময়ে খেলছে। তবে মেসি নিঃসন্দেহে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়।’

মজার ব্যপার হলো, রোনালদো ও ব্যাকহাম দুজনই খেলেছেন একই ক্লাবের জার্সি গায়ে। যদিও একই সময়ে নয়। ম্যান ইউনাইটেড ও রিয়াল, দুই ক্লাবেই ব্যাকহামের উত্তরসূরি হিসেবে খেলেছেন রোনালদো। তবুও ফুটবলের অন্যতম সেরা দ্বৈরথে মেসিকে এগিয়ে রাখলেন ব্যাকহাম।

অন্যদিকে, মেসি এবং ব্যাকহাম কখনোই একই জার্সিতে খেলেননি। তবে প্রতিপক্ষ হিসেবে খেলার সুযোগ হয়েছিল তাদের। ২০১২-১৩ মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিলেন তারা। তখন ব্যাকহাম খেলতেন পিএসজির হয়ে। কোয়ার্টার ফাইনালের দুই লেগ মিলিয়ে ৩-৩ ব্যবধানে সমতা থাকলেও অ্যাওয়ে গোলের হিসাবে এগিয়ে থাকার সুবাদে পরের পর্বে উঠেছিল বার্সা।

সেই লড়াইয়ের স্মৃতিচারণ করে ব্যাকহাম বলেন, ‘মেসি নামার আগ পর্যন্ত আমরা এগিয়েছিলাম। সে মাঠে আসলো (বদলি হিসেবে) এবং বার্সা (পেদ্রো) গোল করল। তখন আমার বয়স হয়ে গিয়েছিল। তবে আমি লড়াইটা উপভোগ করেছি। আমরা দুই লেগেই ভালো খেলেছিলাম। আমরা যা করেছি তাতে আমরা গর্ববোধ করতে পারি। তারা আমাদের হারাতে পারেনি।’

Comments