এসএসসি ২০০৩ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে

দিনমজুরদের জন্য ফ্রি সবজিবাজার

মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলায় করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন মানুষের জন্য ফ্রি সবজিবাজারের আয়োজন করেছেন উপজেলার বরমচাল উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের এসএসসি ২০০৩ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা।
মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলায় করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন মানুষের জন্য ফ্রি সবজি দিচ্ছেন উপজেলার বরমচাল উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজের এসএসসি ২০০৩ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। ছবি: স্টার

মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলায় করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন মানুষের জন্য ফ্রি সবজিবাজারের আয়োজন করেছেন উপজেলার বরমচাল উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের এসএসসি ২০০৩ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা।

এ বাজারে দেশে-বিদেশে অবস্থানরত এসএসসি ২০০৩ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় প্রায় ১ হাজার গরিব, অসহায় ও দুঃস্থ এবং নিম্নআয়ের কর্মহীন মানুষদের জন্যে সবজির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার সকাল ৯টা থেকে বরমচাল উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ মাঠে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ফ্রি সবজিবাজার শুরু হয়। এর আগে প্রায় আড়াইশ পরিবারের মধ্যে ৫ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ১ লিটার তেল, ১ কেজি মসুরডাল, ২ কেজি পিয়াজ, ১ কেজি লবন, ১ পিস সাবানসহ অন্যান্য দ্রব্য বিতরণ করা হয়। এর ধারাবাহিকতায় আগামীতেও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত থাকবে বলে জানান আয়োজকরা।

আয়োজকদের একজন সাংবাদিক সাইদুল হাসান সিপন বলেন, ‘মানবতাবোধ থেকেই এই কাজে উদ্যোগী হয়েছি। এই বাজারে ৫০০ লাউ ও ৫০০ কুমড়ার পাশাপাশি বেগুন, টমেটো, আলু রাখা হয়। একজনকে একটি লাউ বা কুমড়া এবং সঙ্গে বেগুন, টমেটো ও আলু দেওয়া হয়।’

এই গভীর সংকটময় সময়ে সমাজের সব বিত্তবানদের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বানও জানান তিনি।

লাইনে দাঁড়িয়ে সবজি নিয়েছেন হারুন মিয়া। তিনি বলেন, ‘আয় নেই, বাজারেও যেতে পারছি না। আলু খেতে খেতে বাচ্চারা বিরক্ত হয়ে গেছে। এমন সময় চার জাতের সবজি পেয়ে ভালো লাগছে।’

রিকশাচালক কুটি মিয়া বলেন, ‘এই সময়ে যা পাচ্ছি, তাই অনেক। এলাকার ছেলেরা আয়োজন করেছে, তাই সকাল সকাল এসে লাইনে দাঁড়িয়েছি। আশা করি, ৩-৪ দিন ভালো করে খেতে পারব।’

সাংবাদিক সাইদুল হাসান সিপন ছাড়াও এসএসসি ব্যাচের এই আয়োজনে আছেন সাংবাদিক এনামুল আলম, কুলাউড়া উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও প্রভাষক আহসান রাব্বী মিরাজ, ইউপি সদস্য আশরাফুল ইসলাম রাজিব, পর্তুগাল-প্রবাসী অদুদ মিয়া সুমন, আমেরিকা-প্রবাসী নাজমুল ইসলাম ও মুনিমুর রহমান বাবর, যুক্তরাজ্য-প্রবাসী তায়েফ খান, দুবাই-প্রবাসী মাহফুজুর রহমান ইকবাল, করিম আহমদ, ব্যবসায়ী হাসান আহমদ লিটন, সিএইচসিপি শেখ ইব্রাহীম আলী, কাতার-প্রবাসী ফখরুল ইসলাম, কুয়েত-প্রবাসী হেলাল আহমদ, ব্যবসায়ী হাসান আহমদ লিটন, সৌদি-প্রবাসী শামীম আহমদ প্রমুখ।

সাংবাদিক এনামুল আলম বলেন, ‘করোনায় লকডাউনে দিনমজুররা কাজ করতে পারছেন না। তারা অনেক বিপাকে আছেন। এ সংকটকালে আমরা সাধ্যমতো তাদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। ফ্রিতে সবজি দিয়েছি। আমাদের এ চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।’

এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম শফি আহমেদ সলমান বলেন, ‘এ সময় তাদের মতো সব তরুণরা এগিয়ে আসলে সংকট কেটে যাবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Iran attacks: Israel may not act rashly

US says Israel's response would be unnecessary; attack likely to dispel murmurs in US Congress about curbing weapons supplies to Israel because of Gaza

25m ago