এখনো ‘অস্বাস্থ্যকর’ ঢাকার বাতাসের মান: একিউআই

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে গত এক মাস ধরে সারাদেশে যানবাহন চলাচল সীমিত থাকলেও ঢাকার বাতাসের মানের তেমন উন্নতি দেখা যায়নি। বিশ্বের দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় আজ মঙ্গলবার সকালে দ্বিতীয় খারাপ অবস্থানে ছিল বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা।
ছবি: ইউএনবি

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে গত এক মাস ধরে সারাদেশে যানবাহন চলাচল সীমিত থাকলেও ঢাকার বাতাসের মানের তেমন উন্নতি দেখা যায়নি। বিশ্বের দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় আজ মঙ্গলবার সকালে দ্বিতীয় খারাপ অবস্থানে ছিল বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা।

আজ সকাল ৯টা ১২ মিনিটে এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সে (একিউআই) ঢাকার স্কোর ছিল ১৬৩। যার অর্থ এ শহরের বাতাসের মান এখনও ‘অস্বাস্থ্যকর’ পর্যায়ে রয়েছে।

একিউআই স্কোর ১৫১ থেকে ২০০ হলে নগরবাসীর প্রত্যেকের স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব পড়তে পারে। বিশেষ করে শিশু, বৃদ্ধ ও রোগীরা স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়তে পারেন।

বিশ্বের দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় থাইল্যান্ডের চিয়াং মাই ও ভিয়েতনামের হ্যানয় যথাক্রমে ১৬৮ ও ১৫৫ একিউআই স্কোর নিয়ে প্রথম ও তৃতীয় খারাপ অবস্থানে রয়েছে।

প্রতিদিনের বাতাসের মান নিয়ে তৈরি করা একিউআই সূচক একটি নির্দিষ্ট শহরের বাতাস কতটুকু নির্মল বা দূষিত সে সম্পর্কে মানুষকে তথ্য দেয় এবং তাদের জন্য কোন ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হতে পারে তা জানায়।

একিউআই সূচকে ৫০ এর নিচে স্কোর থাকার অর্থ হলো— বাতাসের মান ভালো। একিউআই স্কোর ৫১ থেকে ১০০ হলে বাতাসের মান গ্রহণযোগ্য বলে ধরে নেওয়া হয়। একিউআই স্কোর ১০১ থেকে ১৫০ হলে সাধারণ নগরবাসী, বিশেষ করে শিশু, বয়স্ক ও অসুস্থ রোগীরা স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়তে পারেন।

একিউআই স্কোর ২০১ থেকে ৩০০ হলে স্বাস্থ্য সতর্কতাসহ তা জরুরি অবস্থা হিসেবে বিবেচিত হয়। এ অবস্থায় শিশু, প্রবীণ ও অসুস্থ রোগীদের বাড়ির ভেতরে এবং অন্যদের বাড়ির বাইরের কার্যক্রম সীমাবদ্ধ রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে। একিউআই স্কোর ৩০১ থেকে ৫০০ বা তারও বেশি হলে বাতাসের মান ঝুঁকিপূর্ণ মনে করা হয়। এ সময় স্বাস্থ্য সতর্কতাসহ প্রত্যেক নগরবাসীর জন্য জরুরি অবস্থা হিসেবে বিবেচিত হয়।

Comments

The Daily Star  | English