খেলা

সাকিবের অ্যাগ্রো ফার্মের শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধ

গতকাল বুধবার বিকালে বকেয়া বেতনসহ যাবতীয় পাওনা হিসেবে ১৫০ জন শ্রমিককে ১৯ লাখ ৫৪ হাজার টাকা পরিশোধ করা হয়েছে।
Shakib Al Hasan
সাকিব আল হাসান। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আন্দোলনের দুদিন পর ‘সাকিব আল হাসান অ্যাগ্রো ফার্ম লিমিটেড’- এর কাঁকড়া হ্যাচারির শ্রমিকদের বকেয়া পরিশোধ করা হয়েছে।

গতকাল বুধবার বিকালে বকেয়া বেতনসহ যাবতীয় পাওনা হিসেবে ১৫০ জন শ্রমিককে ১৯ লাখ ৫৪ হাজার টাকা পরিশোধ করা হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কাঁকড়া হ্যাচারি প্রকল্পের তত্ত্বাবধায়ক সগির হোসেন পাভেল, ব্যবস্থাপক মো. সালাউদ্দিন, সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাহী সদস্য খন্দকার আরিফ হাসান ও জেলা ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি শেখ নাসেরুল হকসহ আরও অনেকে।

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার বুড়িগোয়ালিনীতে প্রায় চার মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে গেল সোমবার একটি রাস্তা আটকে বিক্ষোভ করেন ‘সাকিব আল হাসান অ্যাগ্রো ফার্ম লিমিটেড’- এর শ্রমিকরা।

খবরটি প্রকাশ হয় দেশের প্রায় সব গণমাধ্যমে। বাংলাদেশের তারকা অলরাউন্ডার সাকিবের ব্যবসার অংশীদার সগিরও স্বীকার করেন, মন্দাভাব থাকায় ছাঁটাই হওয়া বেশকিছু শ্রমিকের জানুয়ারি মাসের বেতন দেওয়াও সম্ভব হয়নি।

সগীর আরও জানান, সব শ্রমিক চার মাসের বেতন পাবেন এমন না। তবে জানুয়ারিতে ছাঁটাই হওয়া অনেকের বেতন বকেয়া আছে জানিয়ে দ্য ডেইলি স্টারকে তিনি বলেছিলেন, সাকিবের নির্দেশে সেই বেতন দ্রুত দিয়ে দেওয়া হবে।

পরদিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের অফিসিয়াল পেজে বকেয়া বেতন ও শ্রমিকদের আন্দোলন প্রসঙ্গে একটি স্ট্যাটাস দেন সাকিব। নৈতিক কারণে গেল অক্টোবর থেকে সব ধরনের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ থাকা এই ক্রিকেটার ব্যাখ্যা করেন নিজের অবস্থান।

সাকিব লেখেন, ৩০ এপ্রিলের মধ্যে বকেয়া বেতন পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পরও শ্রমিকদের আন্দোলনে বাজে অভিসন্ধি দেখছেন তিনি। গণমাধ্যমে ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে খবর প্রকাশ করা হয়েছে বলেও অভিযোগ তোলেন। সেইসঙ্গে কিছু শ্রমিকের জানুয়ারি মাসের বকেয়া বেতন নিজের ব্যক্তিগত ফান্ড থেকে দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

13 killed in bus-pickup collision in Faridpur

At least 13 people were killed and several others were injured in a head-on collision between a bus and a pick-up at Kanaipur area in Faridpur's Sadar upazila this morning

2h ago