শীর্ষ খবর

খোলা আকাশের নিচে ৩০ পরিবার

লালমনিরহাটের দূর্গাপুর ইউনিয়নের দয়ারকুটি গ্রামে কালবৈশাখী ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত অন্তত ৩০টি পরিবারের খোলা আকাশের নিচে দিন কাটছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ক্ষতির পরিমাণ দেখে গেলেও মেলেনি কোনো সহায়তা।
Lalmonirhat_Kalbaishakhi
লালমনিরহাটের দূর্গাপুর ইউনিয়নের দয়ারকুটি গ্রামে কালবৈশাখী ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত অন্তত ৩০টি পরিবারের খোলা আকাশের নিচে দিন কাটছে। ছবি: স্টার

লালমনিরহাটের দূর্গাপুর ইউনিয়নের দয়ারকুটি গ্রামে কালবৈশাখী ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত অন্তত ৩০টি পরিবারের খোলা আকাশের নিচে দিন কাটছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ক্ষতির পরিমাণ দেখে গেলেও মেলেনি কোনো সহায়তা।

দয়ারকুটি গ্রামের কৃষক মজিবর রহমান (৫৮) জানান, তার চারটি ঘরের মধ্যে দুটি ঘর পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। উপড়ে গেছে গাছ। বোরো ধান-ভুট্টা খেতও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তিনি বলেন, এই মুহূর্তে নিজের সামর্থ্য নেই যে ক্ষতিগ্রস্ত ঘর মেরামত করবো।

ফাতেমা বেগম (৪৬) বলেন, ‘আমাদের দুটি ঘরের দুটিই কালবৈশাখী ঝড়ে ভেঙে গেছে। এখন আমরা খোলা আকাশের নিচে পড়ে আছি। ঘরে খাবারও নেই।’

গতকাল ভোররাতে দয়ারকুটি গ্রামের ওপর দিয়ে কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যায়। উপড়ে পড়ে গাছপালা, ভেঙে পড়ে বাড়ি-ঘর। বোরো ধান, ভুট্টা ও সবজিখেত ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

দূর্গাপুর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল খলিল বলেন, ‘আমার ওয়ার্ডের দয়ারকুটি গ্রামে কালবৈশাখী ঝড়ে প্রায় ৩০টি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তারা মূলত দিনমজুর-কৃষক শ্রেণির। ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ক্ষতিগ্রস্তদের বিষয়ে জানানো হয়েছে, তাদের সরকারি সহায়তা দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।’

Comments

The Daily Star  | English

Cyclones now last longer

Remal was part of a new trend of cyclones that take their time before making landfall, are slow-moving, and cause significant downpours, flooding coastal areas and cities. 

8h ago