‘দলের জন্য খেলতে গিয়ে ক্যারিয়ারের অনেক রান হারিয়েছে মাহমুদউল্লাহ’

সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার মতে, দলের জন্য এই ছাড় দেওয়ায় ক্যারিয়ারের অনেক রান হারিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ।
Mahmudullah

২০১৫ বিশ্বকাপে চার নম্বরে নেমে দুটো সেঞ্চুরি করেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বিশ্বকাপের মঞ্চে বাংলাদেশের প্রথম সেঞ্চুরিও তার ব্যাট দিয়ে। তখন চার নম্বরে তার মধ্যে আস্থার ছবি দেখেছিলেন অনেকেই। কিন্তু বাংলাদেশ দলের ভাবনা ছিল ভিন্ন। নিচের দিকে নেমে খেলা শেষ করা, বা ঝড় তুলে রান বাড়ানোর কাজটাতেও যে তার বিকল্প পাওয়া যাচ্ছিল না। সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার মতে, দলের জন্য এই ছাড় দেওয়ায় ক্যারিয়ারের অনেক রান হারিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ।

ক্যারিয়ারের খারাপ সময়ে অন্য অনেকের মতো মাহমুদউল্লাহর ঢাল হয়েছিলেন অধিনায়ক মাশরাফি। সোমবার ফেসবুক লাইভে তামিম সে কথা স্মরণ করার পরই মাশরাফি উল্লেখ করেন মাহমুদউল্লাহর অবদান,  ‘রিয়াদ এমন একজন ব্যাটসম্যান, ও যদি চার-পাঁচ নম্বরে ব্যাট করার সুযোগ পেত, ওর পরিসংখ্যানও কিন্তু ভালো হতো। দলের ভালোর জন্য ওকে আমাদের ছয়ে ব্যাট করাতে হচ্ছে। আমাদের নিচের দিকে এরকম ব্যাটসম্যান নাই যে বিধ্বংসী খেলতে পারে। দলের জন্য খেলতে গিয়ে ওর ক্যারিয়ারে অনেক রান হারিয়েছে। অনেক সময়ই রিয়াদ মন খারাপ করেছে। আমি বুঝিয়েছি, সে হাসিমুখে মেনে নিয়েছে।’

১৮৮ ওয়ানডেতে ৪ হাজার ৭০ রান আছে মাহমুদউল্লাহর। ৩ সেঞ্চুরির দুটো করেছেন চারে, বাকিটা এসেছে ছয়ে নেমে। অনেক ম্যাচেই গুরুত্বপূর্ণ ২০, ২৫  বা ৩০ রানের ইনিংস আছে তার। পরিসংখ্যানে যা ঝলমল না করলেও ম্যাচের প্রেক্ষিতে ছিল ভীষণ প্রভাব বিস্তার করা। মাশরাফি তাই মনে করেন দলের জন্য সবচেয়ে বেশি ত্যাগ মাহমুদউল্লাহই স্বীকার করেছেন,   ‘ আজকে ওর নামের পাশেও ৭-৮ হাজার রান থাকতে পারত। কিন্তু ওকে দলের জন্য খেলতে হয়েছে। খুব কঠিন কাজ করতে হয় ওকে। ওর কাজটা এমন, সব দিন সফল হবে না। সফল না হলে দর্শক, মিডিয়া, সব জায়গায় সমালোচনা শুনতে হয় ওকে। তার পরও করে যাচ্ছে। সে সিনিয়র ক্রিকেটার, তবু একদিনও এসে কিন্তু বলেনি যে চারে ব্যাট করতে চাই। বাংলাদেশ দলের জন্য সবচেয়ে বেশি ত্যাগ স্বীকার করে আসছে সে।’

 

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

9h ago