ইপিআই পোর্টার করোনায় আক্রান্ত

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের টিকাদান কর্মসূচীর ৪০ বছর বয়সী এক ইপিআই পোর্টারের (ভ্যাকসিন বহনকারী) শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের টিকাদান কর্মসূচীর ৪০ বছর বয়সী এক ইপিআই পোর্টারের (ভ্যাকসিন বহনকারী) শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে পঞ্চগড়ের সিভিল সার্জন মো. ফজলুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ নিয়ে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দশ জন বলে তিনি জানান।  

করোনা শনাক্ত হওয়া ওই ব্যক্তি দেবীগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা থেকে স্বাস্থ্যকর্মীদের মাধ্যমে করোনা পরীক্ষার জন্য সংগ্রহ করা নমুনা পঞ্চগড় সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পৌঁছাতেন বলে জানা গেছে ।  

তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের টিকাদান কর্মসূচীর ইপিআই পোর্টার (ভ্যাকসিন বহনকারী) হিসেবে মজুরিভিত্তিক কাজ করতেন।

গত ৩ মে তার নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আরটিপিসিআর ল্যাবে পাঠায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় তার করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ পাওয়া যায়।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, পঞ্চগড় জেলার পাঁচটি উপজেলা থেকে বুধবার পর্যন্ত মোট ৫২৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য রংপুর ও দিনাজপুরে পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত মোট ৫০৪ জনের নমুনা পরীক্ষার ফল পাওয়া গেছে।

গত ১৭ এপ্রিল জেলায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত মোট ১০ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. হাসিনুর রহমান বলেন, ‘করোনা শনাক্ত হওয়া ওই ব্যক্তি নমুনা বহনের সময় পিপিই ব্যবহার করতেন। সন্দেহবশত তার নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। তার শরীরে করোনার কোন উপসর্গ নেই। তিনি নিজ বাড়িতেই অবস্থান করছেন এবং সুস্থ রয়েছেন।’

তিনি আরও জানান, দেবীগঞ্জ উপজেলা থেকে এ পর্যন্ত মোট ৯৯টি নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। আর এসব নমুনা দুজন ইপিআই পোর্টার পঞ্চগড় সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পৌঁছাতেন।

তবে এর আগে করোনা পরীক্ষায় অপর এক পোর্টারের করোনা নেগেটিভ এসেছে বলে তিনি যোগ করেন।

দেবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রত্যয় হাসান বলেন, ‘গতকাল রাতে করোনা শনাক্ত হওয়া ওই ইপিআই পোর্টারের বাড়িসহ আশ-পাশের কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।’

তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ কোথায় কোথায় যাতায়াত করেছেন এবং তার সংস্পর্শে যারা এসেছেন তাদের কোয়রেন্টিন নিশ্চিত করা হবে বলে ইউএনও জানান।

Comments

The Daily Star  | English