করোনাকালে করণীয়, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের নির্দেশনা

বাংলাদেশে কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ এবং অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ক্রমান্বয়ে চালু করার সুবিধার্থে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, স্থাপনা, ও পেশার জন্য কারিগরি নির্দেশনা সম্বলিত পুস্তক প্রকাশ করেছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।
Health Ministry-1.jpg

বাংলাদেশে কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ এবং অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ক্রমান্বয়ে চালু করার সুবিধার্থে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, স্থাপনা, ও পেশার জন্য কারিগরি নির্দেশনা সম্বলিত পুস্তক প্রকাশ করেছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় গৃহীত স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম পর্যালোচনা এবং সমন্বয়ের লক্ষ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক দায়িত্বপ্রাপ্ত জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞগণ চীন ও অন্যান্য দেশের সংশ্লিষ্ট কারিগরি নির্দেশনা অনুসরণ করে পুস্তকটি প্রণয়ন করেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক নির্দেশিত পুস্তকে বলা হয়েছে, ‘এই পুস্তকে বর্ণিত নির্দেশনাগুলোতে যাই থাকুক না কেন, সরকার কর্তৃক সময়ে সময়ে ঘোষিত কঠোর, মধ্যম বা স্বল্প মাত্রার পদক্ষেপগুলো অবশ্যই যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে।’

‘কোভিড-১৯’ পুস্তকে বাড়ি ও এপার্মেন্ট ভবন, অফিস স্পেস, হোটেল, শপিং মল, ব্যাংক, রেস্টুরেন্ট, সেলুন, কৃষিজাত দ্রব্যের বাজার ও গ্রাম্য হাট-বাজার, পার্ক, স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান, মেডিকেল কোয়ারেন্টিন ও পর্যবেক্ষণ এলাকা, রেলপথে যাত্রী পরিবহণ, সড়কপথে যাত্রী পরিবহন, নৌপথে যাত্রী পরিবহন, সিভিল এভিয়েশন, বাস, ট্যাক্সি, ব্যক্তিগত গাড়ি, বিদেশ থেকে ফেরা বা দূরবর্তী স্থান থেকে আগত লোকজনের জন্য স্থানান্তর যানবাহন, রিকশা ও ত্রিচক্র যান, ওয়ার্ড-গ্রাম-পাড়া বা মহল্লা, প্রতিষ্ঠান, কারখানার জন্য স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কিত নির্দেশনা (গার্মেন্টস, হোশিয়ারী, চামড়া ও টেক্সটাইল ইত্যাদি), নির্মাণ শিল্প, ডাক ও এক্সপ্রেস বিতরণ শিল্প, সরকারি অফিস, শিশু যত্ন কেন্দ্র, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বৃদ্ধ নিবাস, কারাগার, মানসিক স্বাস্থ্য চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান, প্রবীণ নাগরিক, গর্ভবতী মা, শিশু, শিক্ষার্থী, নিজ প্রয়োজনে চিকিৎসা প্রাপ্তি, পুলিশ সদস্য, কোম্পানি স্টাফ, কাস্টমস (অভিবাসন পরিদর্শন, স্বাস্থ্য এবং কোয়ারেন্টিন) কর্মচারী, ড্রাইভার, কুরিয়ার সেবা, ইউটিলিটি সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী, বাবুর্চি, নিরাপত্তা কর্মী, স্যানিটেশন ব্যবস্থা কর্মী, পরিচ্ছন্ন কর্মী, খাদ্য পরিবেশনকারীদের জন্য নির্দেশনা দেওয়া আছে।

পুস্তকটি পেতে ‘কোভিড-১৯’ লিংকে ক্লিক করুন।

এ ছাড়াও, কোভিড-১৯ এর সামাজিক ও প্রাতিষ্ঠানিক সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের বিস্তারিত কারিগরি নির্দেশনা প্রকাশ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

সেগুলো জানতে ‘সামাজিক ও প্রাতিষ্ঠানিক সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের কারিগরি নির্দেশনা’ লিংকে ক্লিক করুন।

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka air: A winter hazard

Almost every morning this past winter, media outlets reported on Dhaka’s air quality. Of the first 53 days of the year, Dhaka had the worst air quality in the world on 19 days.

7m ago