২৬ টাকা দরে ধান কিনবে সরকার, লটারিতে ১৩৫০ কৃষকের ভাগ্য নির্ধারণ

জয়পুরহাটের চলতি বোরো-ধান সংগ্রহের লক্ষ্যে কালাইয়ে উপজেলার বৃহৎ, মাঝারি ও ক্ষুদ্র কৃষকের কাছ থেকে ধান সংগ্রহের জন্য লটারি করে চাষি নির্বাচন করা হয়েছে। উপজেলার ২৪ হাজার ৩৪৩ কৃষকের মধ্যে ১ হাজার ৩৫০ চাষিকে নির্বাচন করা হয়েছে। এসব কৃষকের থেকে সরকারিভাবে ২৬ টাকা দরে ধান কেনা হবে।
স্টার ফাইল ছবি

জয়পুরহাটের চলতি বোরো-ধান সংগ্রহের লক্ষ্যে কালাইয়ে উপজেলার বৃহৎ, মাঝারি ও ক্ষুদ্র কৃষকের কাছ থেকে ধান সংগ্রহের জন্য লটারি করে চাষি নির্বাচন করা হয়েছে। উপজেলার ২৪ হাজার ৩৪৩ কৃষকের মধ্যে ১ হাজার ৩৫০ চাষিকে নির্বাচন করা হয়েছে। এসব কৃষকের থেকে সরকারিভাবে ২৬ টাকা দরে ধান কেনা হবে।

আজ রবিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান মো. হেলাল উদ্দিল মোল্লা লটারি করে তাদের নির্বাচন করেন।

২০১৯-২০২০ অর্থবছরে উপজেলার বোরো-ধান ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা ১ হাজার ৭০৯ মেট্রিক টন। এবার উপজেলার দুই-খাদ্য গুদামে ২৬ টাকা কেজি দরে উপজেলার একটি পৌরসভা ও ৫ টি ইউনিয়নে কৃষি কার্ডধারী নির্বাচিত ১ হাজার ৩৫০ জন কৃষক ধান সরবরাহ করবে।

উপজেলায় ২৪ হাজার ৩৪৩ জন কৃষক আছেন। নির্বাচিতদের মধ্যে বৃহৎ কৃষক ২০ শতাংশ, মাঝারি ৩০ শতাংশ ও ক্ষুদ্র ৫০ শতাংশ করে প্রত্যেকে তিন টন ধান সরকারি গুদামে বিক্রি করতে পারবেন। ধান বিক্রির সময়সীমা আগামী ৩১ আগষ্ট পর্যন্ত।

লটারির শেষে কালাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মোবারক হোসেন পারভেজ বলেন, ‘অনেক পরিশ্রম করে কৃষক ধান উৎপাদন করেন। দালালরা যাতে সুবিধা গ্রহণ না করতে পারে সেজন্য কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ধান কেনা হবে।  তবে কৃষকের ধান বিক্রয়ের সঙ্গে কোনো দালাল থাকতে পারবে না।’

Comments

The Daily Star  | English

44 lives lost to Bailey Road blaze

33 died at DMCH, 10 at the burn institute, and one at Central Police Hospital

8h ago