এক মাসের বেশি সময় ধরে প্রতিদিন ম্যাচ থাকবে লা লিগায়

খেলোয়াড়দের অনুশীলন শুরু হয়ে গেছে গত সোমবার থেকেই। এবার লিগ শুরুর সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করলেন লা লিগার প্রেসিডেন্ট হ্যাভিয়ের তেবাজ। ফলে আবারও স্প্যানিশ ফুটবলের আমেজ পেতে শুরু করেছেন ভক্ত-সমর্থকরা। তবে এবার আর সপ্তাহে একদিন কিংবা দুই দিন নয়, পুরো মাস জুড়ে প্রতিদিন লা লিগার উত্তাপ নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন তারা। এমনটাই জানিয়েছেন লা লিগা প্রেসিডেন্ট
ছবি: এএফপি

খেলোয়াড়দের অনুশীলন শুরু হয়ে গেছে গত সোমবার থেকেই। এবার লিগ শুরুর সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করলেন লা লিগার প্রেসিডেন্ট হ্যাভিয়ের তেবাজ। ফলে আবারও স্প্যানিশ ফুটবলের আমেজ পেতে শুরু করেছেন ভক্ত-সমর্থকরা। তবে এবার আর সপ্তাহে একদিন কিংবা দুই দিন নয়, পুরো মাস জুড়ে প্রতিদিন লা লিগার উত্তাপ নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন তারা। এমনটাই জানিয়েছেন লা লিগা প্রেসিডেন্ট

ইউরোপের লিগগুলো সাধারণত ছুটির দিনগুলোকে লক্ষ্য রেখেই ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। সেক্ষেত্রে শনিবার ও রোববারই হয় ম্যাচগুলো। বাকি সময়টায় অন্যান্য আসর, যেমন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেলা হয়ে থাকে। অথবা সে সব দিনগুলোতে স্রেফ অনুশীলন-বিশ্রামে সময় কাটান খেলোয়াড়রা। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে লম্বা সময় নষ্ট হয়ে যাওয়ায় টানা ম্যাচ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়ে লা লিগা কর্তৃপক্ষ।

তবে প্রতিদিনই খেলা থাকলেও প্রতিটি দলের সপ্তাহে ম্যাচ থাকবে দুটি করেই। যদিও লা লিগা কর্তৃপক্ষ প্রতি দলের সপ্তাহে তিনটি করে ম্যাচ আয়োজন করতে চেয়েছিল। কিন্তু তাতে রাজি হয়নি স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন (আরএফইএফ)।

স্প্যানিশ টিভি নেটওয়ার্ক এল পার্তিদাজোর অনুষ্ঠান মোভিস্টারে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তেবাজ বলেছেন, 'আমি ঠিক জানিনা কবে ফুটবল ফিরবে। আমি জানি না হয়তো ১৯ থেকে শুরু হতে পারে। তবে আমি ১২ জুন থেকে ফেরাটা পছন্দ করবো। তবে এটা আঘাত ও সংক্রামণের পরিমাণের উপর নির্ভর করবে। ৩৫ দিন ধরে টানা প্রতিদিনই ম্যাচ থাকবে। ম্যাচ শুরুর ২৪ ঘণ্টা আগে ম্যাচের সব খেলোয়াড়দের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করানো হবে।'

ইতালির পর স্পেনেই সবচেয়ে ভয়ানক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে করোনাভাইরাস। আক্রান্তের সংখ্যায় বর্তমানে তো ইউরোপের মধ্যে শীর্ষেই আছে দেশটি। তারপরও দেশটিতে খেলোয়াড়রা কম আক্রান্ত হওয়ায় বেশ খুশী তেবাজ, 'বুন্ডেসলিগায় আক্রান্তের সংখ্যার বিচারে এবং স্পেনে যেভাবে ভাইরাসটি ছড়িয়েছে, সেই অনুযায়ী আমরা ধারণা করছিলাম ২৫ থেকে ৩০ জনের মত আক্রান্তের খবর পাব। আড়াই হাজার জনকে পরীক্ষা করে মাত্র আট জনের পজিটিভ এসেছে, যা ভালো খবর। যারা অসুস্থ রয়েছেন তাদের আবার মঙ্গলবার পরীক্ষা করা হবে।'

আর আক্রান্তের সংখ্যা যাতে না বাড়ে সে জন্য সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান লা লিগা প্রেসিডেন্ট, 'মাঠের মধ্যে ঝুঁকিটা কম থাকবে। আমি স্বাস্থ্যকর্মীদের বলেছি, নিয়ম অনুসরণ করে যতোটা কম সংক্রামিত করে এটা শুরু করা যায়। আমরা খেলোয়াড়দের নিয়ন্ত্রণ করতে খুবই উঁচু মানের ব্যবস্থা নিচ্ছি। তবে খেলোয়াড়দের বাসায় প্রোটোকল মানার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি। আমাদের আচরণ সমাজের জন্য অনুকরণীয় হওয়া উচিত। এতে আমি খেলোয়াড়দের অনেক দায়বদ্ধতা দেখি। আপনাকে এ পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে এবং কোনো ধরনের ক্ষতির কারণ না হয়ে সেরা অবস্থায় আমরা প্রোটোকল মেনেই কাজ করব।’

Comments

The Daily Star  | English
Rajuk Fines Swiss Bakery

Sultan's Dine and Nababi Bhoj sealed off, Swiss Bakery fined

All three are located on Bailey Road, where a fire claimed 46 lives last week

1h ago