প্রথম দিন চালু হচ্ছে পশ্চিমাঞ্চলের ৪ আন্তঃনগর ট্রেন

রোববার থেকে স্বল্প পরিসরে চালু করা হচ্ছে বিভিন্ন রুটের ট্রেন। প্রথম ধাপে রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনে চালু হচ্ছে চারটি আন্তঃনগর ট্রেন। দ্বিতীয় ধাপে ৩ জুন থেকে এই জোনে চালু হবে আরও পাঁচটি যাত্রীবাহী ট্রেন।
স্টেশনে যাত্রীর ওঠা-নামার সময় সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে দেওয়া হচ্ছে দাগ। ছবিটি শনিবার দুপুরে পার্বতীপুর স্টেশন থেকে তোলা। ছবি: স্টার

রোববার থেকে স্বল্প পরিসরে চালু করা হচ্ছে বিভিন্ন রুটের ট্রেন। প্রথম ধাপে রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনে চালু হচ্ছে চারটি আন্তঃনগর ট্রেন। দ্বিতীয় ধাপে ৩ জুন থেকে এই জোনে চালু হবে আরও পাঁচটি যাত্রীবাহী ট্রেন।

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতেও এই ট্রেন চালুর জন্য ইতিমধ্যেই দিনাজপুরসহ পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনের রেল স্টেশনগুলোর প্লাটফর্মে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার জন্য করা হয়েছে মার্কিং। রেলওয়ের দায়িত্বরতদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য সরবরাহ করা হয়েছে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই)।

বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনের পাকশী অঞ্চলের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা মো. নাসিরউদ্দীন জানান, প্রথম ধাপে রোববার থেকে ঢাকা-পঞ্চগড় রুটে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস, ঢাকা-রাজশাহী রুটে বনলতা এক্সপ্রেস, ঢাকা-লালমনিরহাট রুটে লালমনি এক্সপ্রেস এবং খুলনা-চিলাহাটি রুটে চিত্রা এক্সপ্রেস চালু হবে।

দ্বিতীয় ধাপে আরও যে পাঁচটি ট্রেন চালু হবে সেগুলো হলো- নীলসাগর এক্সপ্রেস, মধুমতি এক্সপ্রেস, কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস, রূপসা এক্সপ্রেস ও কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস।

বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা মো. নাসিরউদ্দীন আরও জানান, স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ১৬টি নির্দেশনা দিয়েই এসব ট্রেন চালু করা হচ্ছে।

এসব নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে-রেলওয়ের কাউন্টারের পরিবর্তে শতভাগ টিকেট অনলাইনে বিক্রি হবে, প্রতিটি ট্রেনে ধারণ ক্ষমতার ৫০ শতাংশ যাত্রী নেওয়া হবে, ট্রেনে কোনো ভ্রাম্যমাণ বিক্রেতাকে উঠতে দেওয়া হবে না, টিকেটবিহীন যাত্রী ট্রেনে উঠলে তাকে তাৎক্ষণিকভাবে গ্রেপ্তার করা হবে ইত্যাদি।

তিনি জানান, একটি আসন দূরত্ব দিয়ে যাত্রী পরিবহন করা হলেও এক্ষেত্রে বাড়তি কোন ভাড়া দিতে হবে না।

এদিকে দীর্ঘ দুইমাসেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকার পর রোববার থেকে আবার ট্রেন চালু হবে এমন নির্দেশনায় আবারও প্রাণ ফিরে পেতে শুরু করেছে রেল স্টেশনগুলো।

শনিবার দুপুরে দিনাজপুরের পার্বতীপুর রেলওয়ে জংশন স্টেশনে গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন জীবাণুনাশক ছিটিয়ে স্টেশন চত্বর পরিষ্কার করা হচ্ছে।

এছাড়াও সামাজিক দূরত্ব মেনে ট্রেনে যাত্রীদের উঠানামা করার জন্য প্লাটফর্মে মার্কিং করা হচ্ছে। পার্বতীপুর রেলওয়ে স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার আব্দুস সাত্তার জানান, নির্দেশনা অনুযায়ীই এসব কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। করোনার এই মহামারি পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ রেলওয়ে প্রস্তুত।

আগের সময়সূচি অনুযায়ী সব ট্রেন চলাচল করবে বলে তিনি জানান।

Comments

The Daily Star  | English

$7b pledged in foreign funds

When Bangladesh is facing a reserve squeeze, it has received fresh commitments for $7.2 billion in loans from global lenders in the first seven months of fiscal 2023-24, a fourfold increase from a year earlier.

4h ago