বার্সেলোনাতেই যোগ দিচ্ছেন ‘নতুন নেইমার’!

খেলার ধরণ দেখে অনেকেই আদর করে ডাকেন নতুন নেইমার। তার পেছনে বার্সেলোনার নজর গত মৌসুম থেকেই। তাকে পেতে জানুয়ারিতে কিছু অগ্রিমও করে রেখেছিল কাতালানরা। কিন্তু গ্রীষ্মের ট্রান্সফার উইন্ডো খোলার পরও চুক্তি নিয়ে কোনো আলোচনা নেই। তাতে গুঞ্জন উঠেছে আর্থিক সংকটে থাকা দলটি হয়তো শেষ পর্যন্ত নাও কিনতে পারে সাও পাওলোর তরুণ তারকা গুস্তাভো মাইয়াকে। কিন্তু এমন গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন মাইয়ার মুখপাত্র দানিলো সিলভা। খুব শিগগিরই চুক্তি হবে বলে জানান তিনি।
ফাইল ছবি: এএফপি

খেলার ধরণ দেখে অনেকেই আদর করে ডাকেন নতুন নেইমার। তার পেছনে বার্সেলোনার নজর গত মৌসুম থেকেই। তাকে পেতে জানুয়ারিতে কিছু অগ্রিমও করে রেখেছিল কাতালানরা। কিন্তু গ্রীষ্মের ট্রান্সফার উইন্ডো খোলার পরও চুক্তি নিয়ে কোনো আলোচনা নেই। তাতে গুঞ্জন উঠেছে আর্থিক সংকটে থাকা দলটি হয়তো শেষ পর্যন্ত নাও কিনতে পারে সাও পাওলোর তরুণ তারকা গুস্তাভো মাইয়াকে। কিন্তু এমন গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন মাইয়ার মুখপাত্র দানিলো সিলভা। খুব শিগগিরই চুক্তি হবে বলে জানান তিনি।

সম্প্রতি রেডিও ত্রান্সআমেরিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সিলভা বলেছেন, 'আমরা নিশ্চিত (মাইয়াকে) ক্রয়ের ব্যাপারটি পূর্ণ করবে বার্সেলোনা। (বার্সেলোনার পক্ষ থেকে) এখনই ইঙ্গিত মিলেছে বলেই সে এর মধ্যে স্প্যানিশ ভাষা শেখা শুরু করে দিয়েছে। গত কয়েক মাসে অনেক ক্লাবই তার প্রতি আগ্রহ দেখিয়েছে। তবে তার মধ্যে কোনো সন্দেহ নেই, সবসময়ই সে বার্সেলোনায় যেতে চেয়েছে।'

মাইয়াকে পেতে আগ্রহী ছিল অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ, লিভারপুলের মতো ক্লাবগুলোও। কিন্তু বার্সেলোনার প্রতিই আগ্রহ বেশি এ তরুণ ব্রাজিলিয়ানের। আর সে সুযোগটাই নিয়েছে কাতালানরা। গত জানুয়ারিতে ১ মিলিয়ন ইউরো অগ্রিম দিয়ে তাকে এক প্রকার নিশ্চিত করে রেখেছে বার্সেলোনা। চুক্তির বাকি সাড়ে ৩ মিলিয়ন ইউরো দেওয়ার কথা জুনে। কিন্তু জুন মাসের দুই দিন পেরিয়ে গেলেও বার্সার পক্ষ থেকে কোনো তোড়জোড় না দেখা যাওয়ায় নতুন গুঞ্জন উঠেছে ফুটবল পাড়ায়।

মূলত করোনাভাইরাসের কারণেই সব বদলে গিয়েছে। চলতি মৌসুমে বেশ আর্থিক সংকটে পড়েছে বার্সেলোনা। যে কারণে খেলোয়াড়দের ৭০ শতাংশ বেতন ভাতা কেটে নিচ্ছে ক্লাবটি। গুঞ্জন রয়েছে আরও এক দফা খেলোয়াড়দের বেতন কাটতে চাইছে ক্লাব কর্তৃপক্ষরা। অন্যথায় দেনা থেকে বের হওয়ার কোনো সুযোগ নেই তাদের। তার উপর চলতি মৌসুমে তাদের প্রথম লক্ষ্য লাউতারো মার্তিনেজ। এ অবস্থায় আপাতত অন্য কাউকে কিনবে না বলেই গুঞ্জন উঠেছে।

আর এ কারণে এখনও নিশ্চিত হতে পারছেন না মাইয়ার বর্তমান ক্লাব সাও পাওলোর পরিচালক আলেকজান্দ্রে পাসারো, 'মাইয়া বার্সায় যাবে কি না, সে ব্যাপারে এখনই আমরা নিশ্চিতভাবে কিছু বলতে পারি না। মাইয়াকে কেনার জন্য বার্সার কাছে জুন মাসের ৩০ তারিখ পর্যন্ত সময় আছে। তাঁরা এখনও আমাদের এ ব্যাপারে কিছুই জানায়নি। বার্সার সঙ্গে শেষবার যখন আমার কথা হয় ওরা বলেছিল, সবকিছুই অনিশ্চিত।'

Comments