করোনা আপডেট: দিনাজপুর, চাঁদপুর, খুলনা, ঝিনাইদহ, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি

দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা করোনা আক্রান্ত এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। করোনার উপসর্গ দিয়ে চাঁদপুর সদর ও হাজীগঞ্জ উপজেলায় আরও পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে।
Coronavirus-1.jpg
করোনাভাইরাস। ছবি: সংগৃহীত

দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা করোনা আক্রান্ত এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। করোনার উপসর্গ দিয়ে চাঁদপুর সদর ও হাজীগঞ্জ উপজেলায় আরও পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়াও, রাঙামাটিতে আরও আট জন, খাগড়াছড়িতে সাত জন ও ঝিনাইদহে চার জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

দিনাজপুরে হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা করোনা রোগীর মৃত্যু, সাংবাদিকসহ আরও ৯ জন আক্রান্ত

আমাদের দিনাজপুর সংবাদদাতা জানিয়েছেন, জেলার এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলশনে থাকা প্রথম এক করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

এ নিয়ে দিনাজপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো চার জনে।

এদিকে, দিনাজপুরে গতকাল রোববার এক সাংবাদিকসহ আরও নয় জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

এ নিয়ে দিনাজপুরে ৩১৪ জনের করোনা শনাক্ত হলো।

দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুস দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলশনে চিকিৎসাধীন কমল দাস (২৯) নামে এক করোনা রোগী রোববার বিকেলে সাড়ে ৫টায় মারা যান।’

তিনি আরও বলেন, ‘দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার বিন্যাকৃড়ি গোয়ালপাড়া গ্রামের ভট্টা দাসের ছেলে কমল দাস করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ৩১ মে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর তাকে করোনা ওয়ার্ডের আইসোলেশনে রাখা হয়।’

‘এর আগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দিনাজপুরের সদর উপজেলায় এক ইটভাটা শ্রমিক, চিরিরবন্দর উপজেলায় এক নারী গার্মেন্টস শ্রমিক ও বোচাগঞ্জ উপজেলায় এক জুতা ব্যাবসায়ী মারা যান। যদিও ওই তিন জনের মৃত্যুর পর নিশ্চিত হওয়া যায় তারা করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন,’ যোগ করেন তিনি।

এ দিকে, দিনাজপুরে গতকাল একজন সাংবাদিকসহ আরও নয় জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে বিরামপুর উপজেলায় চার জন, সদর উপজেলায় চার জন ও বিরল উপজেলায় একজন।

এ নিয়ে দিনাজপুর জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩১৪ জনে।

চাঁদপুর ও হাজীগঞ্জে আরও ৫ জনের মৃত্যু

আমাদের চাঁদপুর সংবাদদাতা জানিয়েছেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে চাঁদপুর ও হাজীগঞ্জে আরও পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তাদের মধ্যে কাজী মো. এনামুল হক (৬৫) নামে এক ব্যক্তি করোনার উপসর্গ শ্বাসকস্ট নিয়ে গতকাল রোববার রাত সোয়া ৯ টায় চাঁদপুর সদরের ২৫০ শয্যা সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশনে মারা যান। পরে তার করোনা নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

এদিকে, দুপুর ১টায় শহরের প্রফেসর পাড়া মোল্লাবাড়ি এলাকার হাজী রহিম খার ছেলে নুরুল আমিনকে (৪৫) চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নেওয়ার সময় পথে মারা যান। তার শ্বাসকস্ট ছিল। চাঁদপুর সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. সুজাউদ্দৌলা রুবেল দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শোয়েব আহমেদ ডেইলি স্টারকে জানিয়েছেন, হাজীগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে গতকাল রাতে একজন এবং আজ সোমবার ভোররাত ও সকালে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আজ সকাল ৭টায় হাজীগঞ্জ পৌর এলাকায় ৫৫ বছর বয়সের এক ব্যক্তি করোনা উপসর্গ শ্বাসকস্ট নিয়ে নিজ বাড়িতে মারা যান। এর আগে উপজেলার ডাটরা শীবপুর এলাকায় ভোররাত ২টায় ৪৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তি এবং কাঠালিয়া এলাকায় গতকাল রাত ১১টায় ৬৫ বছর বয়সের এক ব্যক্তি করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান।’

তাদের করোনা নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

খুলনায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ৩ জনের মৃত্যু

আমাদের খুলনা সংবাদদাতা জানিয়েছেন, করোনার উপসর্গ নিয়ে খুলনায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে।

তিনি জানান, গতকাল রোববার রাত পৌনে ১২টা থেকে আজ সোমবার ভোর ৫টা ৩৫ মিনিটের মধ্যে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফ্লু কর্নারে তাদের মৃত্যু হয়।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফ্লু কর্নারের ফোকাল পার্সন (আরএমও) ডা. মিজানুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘খুলনা মহানগরীর রায়ের মহল এলাকার মৃত মজিদ হাওলাদারের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৬৫) গতকাল সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে করোনা সন্দেহে ওয়ার্ডে ভর্তি হন।’

‘পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ফ্লু কর্নারে নেওয়া হয়,’ উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘সেখানে তিনি আজ ভোর ৫টা ৩৫ মিনিটে মারা যান।’

‘এছাড়াও, মহানগরীর দৌলতপুর এলাকার রাজিব হোসেনের মেয়ে মিম (১২) গতকাল রাত ১১টার দিকে জ্বর-কাশি নিয়ে ভর্তি হয়। রাত পৌনে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।’

‘সাতক্ষীরা জেলার পাটকেলঘাটা থানার শুশান্ত মণ্ডলের ছেলে রিপন (২২) জ্বর-কাশি নিয়ে ফ্লু কর্নারে ভর্তি হন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে তিনি মারা যান। করোনা পরীক্ষার জন্য তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে,’ যোগ করেন তিনি।

ঝিনাইদহে আরও ৪ জনের করোনা শনাক্ত

ঝিনাইদহে আরও চার জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এ জেলায় করোনায় রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৯ জনে।

আজ সোমবার সকালে দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম।

তিনি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত যশোর ও কুষ্টিয়া থেকে ঝিনাইদহে ২৭টি রিপোর্ট এসেছে। এর মধ্যে চার জনের পজেটিভ এসেছে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে তিন জনের বাড়ি কালীগঞ্জ উপজেলায় ও একজনের বাড়ি কোটচাঁদপুর উপজেলায়।’

আক্রান্তদের মধ্যে ৩৮ জন সুস্থ হয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন ডা. সেলিনা।

রাঙ্গামাটিতে আরও ৮ জন ও খাগড়াছড়িতে ৭ জনের করোনা শনাক্ত

আমাদের রাঙ্গামাটি সংবাদদাতা জানিয়েছেন, জেলায় দুই পুলিশ সদস্যসহ আরও আট জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৭৮ জনে।

আজ সোমবার চট্টগ্রাম থেকে নমুনা পরীক্ষার তথ্য পাওয়া যায় বলে দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন রাঙ্গামাটি সিভিল সার্জন কার্যালয়ের করোনাবিষয়ক ফোকাল পার্সন ডা. মোস্তফা কামাল।

তিনি বলেন, ‘চট্টগ্রামের সিভাসু ল্যাব থেকে আজ সোমবার সকালে সাত জন ও গতকাল রাতে একজনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তাদের মধ্যে গত ৩১ মে কাপ্তাই উপজেলায় এক স্বাস্থ্যকর্মী ও ৬ জুন রাঙ্গামাটি শহরের ভেদভেদী এলাকায় এক প্রবীণ ব্যক্তি করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যান। তাদেরও করোনা পজিটিভ এসেছে।’

এছাড়াও, খাগড়াছড়িতে আরও সাত জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকাল রোববার রাত চট্টগ্রামে নমুনা পরীক্ষার পর এই ব্যক্তিদের করোনাভাইরাস পজিটিভ পাওয়া যায় বলে দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন খাগড়াছড়ি সিভিল সার্জন নুপুর কান্তি দাশ।

জেলা সিভিল সার্জন সূত্রে জানা যায়, খাগড়াছড়িতে নয়টি উপজেলার মধ্যে সাতটিতে করোনা সংক্রমণ হয়েছে। তবে গুইমারা এবং লক্ষীছড়িতে এখনো করোনা শনাক্ত হয়নি।

এখন পর্যন্ত জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৫ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৬ জন।

Comments

The Daily Star  | English

New School Curriculum: Implementation limps along

One and a half years after it was launched, implementation of the new curriculum at schools is still in a shambles as the authorities are yet to finalise a method of evaluating the students.

24m ago