অ্যাতলেতিকোর প্রস্তাবে রিয়ালের 'না'

চাইলেই অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের স্টেডিয়াম ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোকে নিজেদের মাঠ হিসেবে ব্যবহার করতে পারে রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু অ্যাতলেতিকোর পক্ষ থেকে দেওয়া সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ কর্তৃপক্ষ। লিগের ম্যাচগুলো আলফ্রেড ডি স্টেফানো ট্রেনিং গ্রাউন্ডে আয়োজনের সিদ্ধান্তই নিয়েছে তারা। এমনকি দর্শকদের মাঠে যাওয়ার অনুমতি মিললেও। এমন সংবাদই প্রকাশ করেছে মাদ্রিদভিত্তিক গণমাধ্যম মার্কা।

চাইলেই অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের স্টেডিয়াম ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোকে নিজেদের মাঠ হিসেবে ব্যবহার করতে পারে রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু অ্যাতলেতিকোর পক্ষ থেকে দেওয়া সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ কর্তৃপক্ষ। লিগের ম্যাচগুলো আলফ্রেড ডি স্টেফানো ট্রেনিং গ্রাউন্ডে আয়োজনের সিদ্ধান্তই নিয়েছে তারা। এমনকি দর্শকদের মাঠে যাওয়ার অনুমতি মিললেও। এমন সংবাদই প্রকাশ করেছে মাদ্রিদভিত্তিক গণমাধ্যম মার্কা।

তবে অ্যাতলেতিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিক কেরেজোর দেওয়া প্রস্তাবে কৃতজ্ঞ রিয়াল কর্তৃপক্ষরা। তাদের ধন্যবাদও জানিয়েছেন। কিন্তু ভালদেবেবাসে নিজেদের অনুশীলন মাঠেই নিজদের হোম ম্যাচ আয়োজনের সিদ্ধান্তে অনড় তারা। ফলে আগামীকাল রোববার ডি স্টেফানো ট্রেনিং গ্রাউন্ডেই এইবারের মুখোমুখি হচ্ছে লস ব্লাঙ্কোসরা। এ ম্যাচ দিয়েই ফের শুরু হচ্ছে তাদের লা লিগা মিশন।

সাম্প্রতিক সময়ে ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে স্পেনের অবস্থা। অনেকটাই কমছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। মৃত্যুর হারও অনেক কম। সবমিলিয়ে করোনাভাইরাসের বিপক্ষে লড়াই স্পেন বেশ সফলই। তাই গুঞ্জন উঠেছে দ্রুতই হয়তো দর্শকদের উপস্থিতির অনুমতিও মিলবে। আর এমনটা হলে রিয়ালের জন্য কিছুটা ঝামেলা হতে পারে। কারণ ডি স্টেফানো ট্রেনিং গ্রাউন্ডে দর্শক ধারণ ক্ষমতা মাত্র ছয় হাজার। এ কারণেই রিয়ালকে নিজেদের স্টেডিয়াম ব্যবহারের প্রস্তাব দিয়েছিল অ্যাতলেতিকো।

তবে রিয়ালের ভাবনা ভিন্ন। আগামী মৌসুমের আগে দর্শকদের উপস্থিতির অনুমতি দেওয়া হবে বলেই নিশ্চিত তারা। তাই অ্যাতলেতিকোর প্রস্তাবে সাড়া না দিয়ে ডি স্টেফানো ট্রেনিং গ্রাউন্ডে নিজেদের হোম ম্যাচ খেলবে তারা।

এদিকে, সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর সংস্কার কাজ বেশ দ্রুতই এগিয়ে চলছে। এ স্টেডিয়ামের জাদুঘরই মাদ্রিদ শহরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মানুষ ভ্রমণ করতে যান। বৃহস্পতিবার থেকে স্টেডিয়ামে ভক্ত-সমর্থকদের ভ্রমণের জন্য ফের খুলে দেওয়া হচ্ছে। আর করোনাভাইরাসের কারণে ফুটবল স্থগিত হওয়ার আগে টিকেটের মূল্য যা ছিল তার চেয়ে অনেক কমানো হচ্ছে বলেও সংবাদে জানানো হয়েছে। 

লিগে এখনও ৬ হোম ম্যাচ বাকি রিয়ালের। এইবার, ভ্যালেন্সিয়া, মায়োর্কা, গেটাফে, আলাভেস  ও ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে খেলবে তারা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে অবশ্য দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ম্যানচেস্টার সিটির মাঠে খেলবে তারা। ঘরের মাঠে ইংলিশ দলটির কাছে ১-২ গোলের ব্যবধানে হেরেছিল তারা।

Comments