নাপোলির বিপক্ষে ঘরের মাঠেই খেলতে চায় বার্সেলোনা

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে নাপোলির মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এ ম্যাচটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আয়োজনের চিন্তা করছে ইউরোপিয়ান ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা উয়েফা। তবে বিষয়টি পছন্দ হয়নি বার্সেলোনার কোচ কিকে সেতিয়েনের। নিজেদের ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পেই খেলতে চান কাতালানরা।
ছবি: এএফপি

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে নাপোলির মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এ ম্যাচটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আয়োজনের চিন্তা করছে ইউরোপিয়ান ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা উয়েফা। তবে বিষয়টি পছন্দ হয়নি বার্সেলোনার কোচ কিকে সেতিয়েনের। নিজেদের ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পেই খেলতে চান কাতালানরা।

প্রথম লেগে নিজেদের মাঠে খেলে বাড়তি সুবিধা পেয়েছে নাপোলি। সে মেচটি ড্র হয়েছে ১-১ ব্যবধানে। এখন দ্বিতীয় লেগ বার্সেলোনা নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেললে সে সুবিধাটা পাচ্ছে না তারা। যদিও ন্যু ক্যাম্পে খেলা হলেও সমর্থকদের মাঠে ঢোকার অনুমতি থাকবে না। তারপরও নিজেদের মাঠেই ম্যাচটি আয়োজন করার পক্ষে সেতিয়েন, 'যদি আমরা নাপোলির বিপক্ষে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলি তাহলে এটা আমাদের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। কারণ আমরা এর মধ্যেই প্রথম লেগ তাদের ঘরের মাঠে সান পাওলোতে খেলে এসেছি।'

গত মার্চে নাপোলির মাঠ থেকে প্রথম লেগের ম্যাচ খেলে ফেরার পর নিজেদের মাঠে খেলার প্রস্তুতি নিচ্ছিল বার্সেলোনা। এমন সময়েই করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করে। ফলে স্থগিত হয়ে যায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। সাম্প্রতিক সময়ে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কিছুটা কাটিয়ে ওঠায় আগামী আগস্টে ফের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ শুরুর চিন্তা ভাবনা করছে উয়েফা। তবে দ্রুততম সময়ে খেলা শেষ করতে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে এক লেগে ম্যাচ আয়োজন করার চিন্তা করছে তারা। তবে শেষ ষোলোর যে সকল খেলা এক লেগ হলেও দ্বিতীয় লেগ হয়নি, সে ম্যাচগুলো নিয়েই নানা আলোচনা চলছে।

শেষ পর্যন্ত নিরপেক্ষ ভেন্যুতে এ ম্যাচ আয়োজন হলে তা অবশ্যই মেনে নিবেন বলে জানিয়েছেন বার্সা কোচ, 'যদি শেষ পর্যন্ত এটাই চিত্র হয়, তাহলে আমাদের এটা মেনে নিতেই হবে। এখনও অনেক বিষয় নিয়ে আলোচনা চলছে, অনেক মতবাদ, দেখা যাক কি হয়।'

উল্লেখ্য, গত কয়েক মৌসুম চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ঘরের মাঠে বাইরে নিজেদের রেকর্ডটা ভালো যাচ্ছে না বার্সার। দুই মৌসুম আগে ঘরের মাঠে ৪-১ গোলে এগিয়ে থেকে এএস রোমার মাঠে গিয়ে ০-৩ গোলে হেরে ছিটকে যায় তারা। গত মৌসুমে তো আরও ভয়াবহ চিত্র। ঘরের মাঠে ৩-০ গোলে এগিয়ে অ্যানফিল্ডে লিভারপুলের কাছে ০-৪ গোলে বিধ্বস্ত হয় দলটি।

Comments

The Daily Star  | English
biman flyers

Biman does a 180 to buy Airbus planes

In January this year, Biman found that it would be making massive losses if it bought two Airbus A350 planes.

12m ago