ভারতের কাছে ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল বিক্রি করেছে শ্রীলঙ্কা!

২০১১ বিশ্বকাপে শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত। নিঃসন্দেহে ক্রিকেটের অবিস্মরণীয় মুহূর্তের মধ্যে একটি ক্রিকেট ভক্তদের জন্য। কিন্তু সে সব কিছুই নাকি ছিল পাতানো! এমনটাই দাবি করেছেন শ্রীলঙ্কার তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী মাহিনদানান্দা আলুথগামাগে। রাখঢাক না রেখে সরাসরিই বলেছেন, ভারতের কাছে ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল বিক্রি করেছে শ্রীলঙ্কা!
ফাইল ছবি: এএফপি

২০১১ বিশ্বকাপে শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত। নিঃসন্দেহে ক্রিকেটের অবিস্মরণীয় মুহূর্তের মধ্যে একটি ক্রিকেট ভক্তদের জন্য। কিন্তু সে সব কিছুই নাকি ছিল পাতানো! এমনটাই দাবি করেছেন শ্রীলঙ্কার তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী মাহিনদানান্দা আলুথগামাগে। রাখঢাক না রেখে সরাসরিই বলেছেন, ভারতের কাছে ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল বিক্রি করেছে শ্রীলঙ্কা!

ঐতিহাসিক সে ম্যাচে শ্রীলঙ্কার ছুঁড়ে দেওয়া ২৭৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে গৌতম গম্ভীর ও মহেদ্র সিং ধোনির দারুণ দুটি ইনিংসে জয় পায় ভারত। গম্ভীর খেলেন ৯৭ রানের ইনিংস আর ধোনির ব্যাট থেকে আসে ৯৭ রান। বিশেষকরে জয়সূচক রান যেটা ধোনি মেরে দলের জয় নিশ্চিত করেছিলেন সে মুহূর্ত তো কদিন আগেও আইসিসির সেরা মুহূর্তের একটি হিসেবে ঘোষণা করে।

তবে আলুথগামাগের মন্তব্যে উত্তপ্ত ক্রিকেট বিশ্ব। তার ভাষ্য মতে সেই ফাইনালটি ছিল পাতানো। স্থানীয় টিভি চ্যানেল সিরাসাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, 'আজকে আমি আপনাদের বলছি, ২০১১ বিশ্বকাপ আমরা বিক্রি করেছি। আমি এমনটা বলছি, কারণ তখন আমি ক্রীড়ামন্ত্রী ছিলাম।'

তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী আলুথগামাগে এখনও আছেন লঙ্কান মন্ত্রী পরিষদে। দীর্ঘদিন পর ঘটনাটি জানানোর পর তার সম্পূর্ণ দায় নিচ্ছেন বর্তমান জ্বালানি মন্ত্রী, 'দেশের কথা ভেবে আমি এমনটা বলতে চাইনি। তবে আমি সঠিকভাবে নিশ্চিত নই সালটা ২০১১ না ২০১২। তবে সেই ম্যাচটা আমরা জয়ের পথেই ছিলাম। আমি দায়িত্ব নিয়েই বলছি, আমার মনে হয়েছে ম্যাচটা পাতানো ছিল। আমি তর্কে যেতে রাজি, জানি লোকজন বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন।'

ম্যাচ পাতানোর কথা দাবি নির্দিষ্ট কোনো খেলোয়াড়কে দায়ী করেননি আলুথগামাগে। তবে এমন মন্তব্যের পর আইসিসির অ্যান্টি করাপশন ইউনিটের (আকু) কাছে প্রমাণ দিতে বলে একটি টুইট করেছেন সে বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার নেতৃত্ব দেওয়া কুমারা সাঙ্গাকারা, 'সে যে মন্তব্য করেছে সে অনুযায়ী আইসিসি এবং অ্যান্টি করাপশন ইউনিটের কাছে প্রমাণ দেওয়া দরকার।'

তবে সে ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান জয়াবর্ধনে এক হাত নিয়েছেন আলুথগামাগেকে। রাজনৈতিক কারণে এমন মন্তব্য করেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। টুইটারে তিনি লিখেছেন, 'নির্বাচন কাছে আসছে আর সার্কাস শুরু হচ্ছে... নাম এবং প্রমাণ?'

Comments

The Daily Star  | English

MV Abdullah berths at UAE port

The hostage Bangladeshi ship MV Abdullah that was released by the Somali pirates on April 14 berthed at a jetty of the UAE port of Al Hamriyah, at 10:00pm (Bangladesh time) today

41m ago