কক্সবাজারের ৩ লাল জোনে ১১ জুলাই পর্যন্ত ছুটি

কক্সবাজারে তিনটি লাল জোনে ১১ জুলাই পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।
কক্সবাজারের উখিয়ায় যেসব এলাকাকে লাল জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে সেখানে রয়েছে রোহিঙ্গা শিবিরগুলো। রয়টার্স ফাইল ছবি

কক্সবাজারে তিনটি লাল জোনে ১১ জুলাই পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

লাল জোনের মধ্যে রয়েছে—কক্সবাজার পৌরসভা; টেকনাফ পৌরসভা; উখিয়ার রাজাপালং ইউনিয়নের ২, ৫, ৬ ও ৯ নং ওয়ার্ড, রত্নাপালং ইউনিয়নের কোটবাজার,  পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী ও থাইংখালী বাজার।

২০ জুন থেকে এই অঞ্চলগুলো লাল জোনের অন্তর্ভূক্ত বলে প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়। আর সাধারণ ছুটি কার্যকর থাকবে ২৪ জুন থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় গতকাল ২৩ জুন মঙ্গলবার রাতে প্রজ্ঞাপনটি জারি করে। এতে কক্সবাজারসহ মাগুরা, খুলনা ও হবিগঞ্জের সাতটি লাল জোনে ২৪ জুন থেকে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়।

আদেশে বলা হয়, লাল অঞ্চল ঘোষিত এলাকায় বসবাসরত সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত, সংবিধিবদ্ধ ও বেসরকারি অফিস, প্রতিষ্ঠান ও সংস্থায় কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ক্ষেত্রে ছুটি প্রযোজ্য হবে। তবে জরুরি পরিষেবা ছুটির আওতায় থাকবে না।

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে দেশজুড়ে দুই মাসের সাধারণ ছুটির পর এখন সংক্রমণপ্রবণ এলাকাগুলো চিহ্নিত করে সেখানে লকডাউনের কৌশল নিয়েছে সরকার।

সংক্রমিতের সংখ্যার দিক দিয়ে দেশে চতুর্থ অবস্হানে রয়েছে কক্সবাজার। ঢাকা, চট্টগ্রাম ও নারায়ণগঞ্জের পরই কক্সবাজার জেলার অবস্হান। উখিয়া উপজেলার যেসব এলাকাকে লাল জোন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে সেখানে রয়েছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ শরনার্থী শিবির।

Comments

The Daily Star  | English

Bangladeshi students terrified over attack on foreigners in Kyrgyzstan

Mobs attacked medical students, including Bangladeshis and Indians, in Kyrgyzstani capital Bishkek on Friday and now they are staying indoors fearing further attacks

6h ago