কক্সবাজারে সেনাবাহিনীর হাতে ইয়াবাসহ আটক ২ মাদক চোরাকারবারি

সেনাবাহিনীর হাতে ইয়াবাসহ আটক হয়েছে দুই মাদক চোরাকারবারি। কক্সবাজার জেলার রামুতে সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিশনের আওতাধীন সেনানিবাসের কর্তব্যরত মিলিটারি পুলিশ দুই দফা তল্লাশি চালিয়ে আজ সোমবার ২৫ হাজার ইয়াবাসহ দুই চোরাকারবারিকে আটক করে।

সেনাবাহিনীর হাতে ইয়াবাসহ আটক হয়েছে দুই মাদক চোরাকারবারি। কক্সবাজার জেলার রামুতে সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিশনের আওতাধীন সেনানিবাসের কর্তব্যরত মিলিটারি পুলিশ দুই দফা তল্লাশি চালিয়ে আজ সোমবার ২৫ হাজার ইয়াবাসহ দুই চোরাকারবারিকে আটক করে।

রামু সেনানিবাস থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়, ২০ হাজার ইয়াবাসহ মোহাম্মদ রফিক (২৭) এবং পাঁচ হাজার ইয়াবাসহ মোহাম্মদ সাহিদকে (২০) আটক করা হয়েছে। আজ সকালে রামু সেনানিবাস সংলগ্ন এসএসডি এমপি গেইটে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

মাদক চোরাকারবারিরা সিএনজি অটোরিক্সায় উখিয়ার মরিছ্যা থেকে রামু যাওয়ার সময় রামু সেনানিবাসের এসএসডি এমপি গেইট পার হওয়ার সময় কর্তব্যরত মিলিটারি পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে ওই ইয়াবাগুলো জব্দ করে।

রামু-মরিছ্যা সড়কে চলাচল করা প্রতিটি যানবাহন সেনানিবাস সংলগ্ন এলাকা অতিক্রম করার সময় দুটি চেকপোস্টে কর্তব্যরত মিলিটারি পুলিশ সদস্যরা নিয়মিতভাবে তল্লাশি করে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ সকাল ৮টায় এবং সকাল সাড়ে ১১টায় পৃথক দুটি তল্লাশিতে সিএনজি অটোরিক্সা চালক মোহাম্মদ রফিক এবং মোহাম্মদ সহিদকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাদের কথা ও গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে অটোরিক্সা তল্লাশি করে প্যাকেট ভর্তি ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

মোহাম্মদ রফিক বান্দরবান জেলার কালঘাটা গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদের ছেলে এবং  মোহাম্মদ সাহিদ কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলার মুহুরীপাড়া গ্রামের রফিক উদ্দিনের ছেলে। তারা দুজনই দীর্ঘদিন মাদক চোরাকারবারির সঙ্গে সম্পৃক্ত। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর দুজনকেই আটককৃত অটোরিক্সা ও ইয়াবাসহ র‍্যাব-১৫ এর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English
Personal data up for sale online!

Personal data up for sale online!

Some government employees are selling citizens’ NID card and phone call details through hundreds of Facebook, Telegram, and WhatsApp groups, the National Telecommunication Monitoring Centre has found.

13h ago