ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার আবারও অবনতি

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার আবারও অবনতি হয়েছে।
Dr Zafrullah Chowdhury
গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। ছবি: সংগৃহীত

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার আবারও অবনতি হয়েছে।

গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের জিআর কোভিড-১৯ র‌্যাপিড ডট ব্লট কিট প্রকল্পের সমন্বয়কারী ডা. মুহিব উল্লাহ খোন্দকার দ্য ডেইলি স্টারকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী কোভিড-১৯ পরবর্তী সেকেন্ডারি নিউমোনিয়ায় ভুগছেন। সপ্তাহে তিন বার ডায়ালাইসিস নির্ভর, বিকল কিডনি রোগী হিসেবে দীর্ঘ একমাস রোগ ভোগের কারণে উনার শরীর খুবই দুর্বল। স্বরযন্ত্রের প্রদাহের কারণে বর্তমানে কথা বলা নিষেধ।’

ডা. মুহিব উল্লাহ খোন্দকার বলেন, ‘গতকাল প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এবিএম আবদুল্লাহ ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে দেখে গেছেন, প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়েছেন এবং উনার অবস্থার অগ্রগতি সম্পর্কে নিয়মিতভাবে জানাতে বলেছেন।’

তিনি বলেন, ‘জিআর কোভিড-১৯ র‌্যাপিড অ্যান্টিবডি কিট নিবন্ধন না পাওয়ায় ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী খুবই বিষণ্ণ। তবে ঔষধ প্রশাসন ও বিএসএমএমইউ কিটের উন্নয়নে সহায়তা করবে জানতে পেরে উনি ধন্যবাদ জানিয়েছেন। গণস্বাস্থ্য আরএনএ বায়োটেক লিমিটেড কিটের আরও উন্নত সংস্করণ তৈরি করছে। উনি আশাবাদ প্রকাশ করেছেন শিগগির কিটটি নিবন্ধন পাবে এবং শিগগির বিএসএমএমইউ অ্যান্টিজেন কিট পরীক্ষার কাজ শুরু করবে।’

‘ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে কোভিড-১৯ রোগীদের জন্য শিগগির ১৫ শয্যার একটি আইসিইউ চালু করতে যাচ্ছেন। অসুস্থতার মধ্যেও অর্থ জোগাড়ের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এবং সার্বিক কর্মকাণ্ড পর্যবেক্ষণ করছেন’, যোগ করেন তিনি।

ডা. মুহিব উল্লাহ খোন্দকার আরও বলেন, ‘ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী সৃষ্টিকর্তার অশেষ রহমতে এ দেশের হাজারো মানুষের দোয়া এবং সীমাহীন মানসিক দৃঢ়তায় রোগের সঙ্গে লড়ে যাচ্ছেন। তিনি সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন এবং উনার স্বপ্ন বাস্তবায়নে দেশের অবস্থা-সম্পন্নদের সহায়তা চেয়েছেন।’

Comments

The Daily Star  | English

BCL leaders beaten up, forced out of most DU halls overnight

Students make hall provosts sign notices banning politics in the halls

1h ago