শেষকৃত্যে যোগ দেওয়ায় উইন্ডিজ কোচকে বরখাস্তের হুমকি

হোটেল ছেড়ে গত শুক্রবার তার শ্বশুরের শেষকৃত্যে যোগ দিয়েছিলেন উইন্ডিজের প্রধান কোচ ফিল সিমন্স। মহামারি করোনাভাইরাসের এ সময়ে শেষকৃত্যে যোগ দেওয়া পছন্দ হয়নি বারবাডোজ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান কনডে রিলে। যিনি উইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের সদস্যও বটে। সিমন্সকে বরখাস্ত করার দাবি তুলেছেন এ বোর্ড পরিচালক। এমনটাই জানিয়েছে ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফো।
ছবি: এএফপি

হোটেল ছেড়ে গত শুক্রবার তার শ্বশুরের শেষকৃত্যে যোগ দিয়েছিলেন উইন্ডিজের প্রধান কোচ ফিল সিমন্স। মহামারি করোনাভাইরাসের এ সময়ে শেষকৃত্যে যোগ দেওয়া পছন্দ হয়নি বারবাডোজ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান কনডে রিলে। যিনি উইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের সদস্যও বটে। সিমন্সকে বরখাস্ত করার দাবি তুলেছেন এ বোর্ড পরিচালক। এমনটাই জানিয়েছে ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফো।

মূলত টিম হোটেলের ‘জীবাণুমুক্ত’ পরিবেশ থেকে বেরিয়ে সফরে থাকা বাকি ক্যারিবিয়ানদের জীবন ঝুঁকিতে ফেলেছেন বলে মনে করেন রিলে, 'আমি রেডিওতে শুনলাম, আমাদের প্রধান কোচ ফিল সিমন্স সম্প্রতি একটি শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন এবং এখন কোয়ারেন্টিনে আছেন। এই খবর যদি সত্যি হয়, তাহলে প্রধান কোচের পদ থেকে তাকে এখনই অপসারণের আহ্বান জানাচ্ছি।'

আর কেন এ দাবি জানাচ্ছেন তার ব্যাখ্যা করেছেন এ বোর্ড পরিচালক, 'উদ্বিগ্ন পরিবার ও বারবাডোজ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা আমাকে চাপ দিচ্ছে। অবিবেচকের মতো কাজ করেছে কোচ। যুক্তরাজ্যে থাকা ২৫ ক্রিকেটার ও ম্যানেজমেন্টের সব সদস্যের জীবনকে ঝুঁকিতে ফেলেছে, যা মানা যায় না।'

শেষকৃত্য থেকে ফেরার পর স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন সিমন্স। বোর্ডের অনুমতি নিয়েই সেখানে গিয়েছিলেন বলে জানা গেছে। এরপর শুক্রবার থেকে দুবার কোভিড-১৯ পরীক্ষাও করা হয় তার। দুইবারই ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। তবে দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার আগে আরও এক দফা পরীক্ষা করানোর কথা রয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Death came draped in smoke

Around 11:30pm, there were murmurs of one death. By then, the fire had been burning for over an hour.

7h ago