উইন্ডিজের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের টেস্ট স্কোয়াডে নেই বেয়ারস্টো-মঈন

বেন স্টোকসকে অধিনায়ক করে ১৩ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।
moeen bairstow
ছবি: এএফপি

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজকে সামনে রেখে ইংল্যান্ডের ৩০ সদস্যের অনুশীলন ক্যাম্পে ডাক পেলেও দলটির প্রথম টেস্টের স্কোয়াডে জায়গা হয়নি উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো ও স্পিন-অলরাউন্ডার মঈন আলির।

শনিবার তারকা পেস-অলরাউন্ডার বেন স্টোকসকে অধিনায়ক করে ১৩ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। পাশাপাশি রিজার্ভ খেলোয়াড় হিসেবে রাখা হয়েছে আরও নয় জনকে। সেখানেও উপেক্ষিত থেকে গেছেন ৩০ বছর বয়সী বেয়ারস্টো ও ৩৩ বছর বয়সী মঈন।

মূলত ধারাবাহিকতার পথে হেঁটেছে ইংলিশ বোর্ড। এই স্কোয়াডের ১৩ সদস্যের সবাই চলতি বছরের শুরুতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের টেস্ট সিরিজের দলে ছিলেন।

ব্যাট হাতে সময়টা ভালো না যাওয়ায় ৭০টি টেস্ট খেলা বেয়ারস্টো ইংল্যান্ড দলে হয়ে পড়েছেন অনিয়মিত। উইকেটের পেছনে দায়িত্ব পালনে তার দীর্ঘদিনের প্রতিদ্বন্দ্বী বাটলারের পাশপাশি বেন ফোকসকে পছন্দের তালিকায় এগিয়ে রাখছেন নির্বাচকরা। গেল বছর নভেম্বরে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে বাদ পড়েছিলেন তিনি। পরের মাসে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে খেলেছিলেন মাত্র একটি ম্যাচ। এরপর চলতি বছরের মার্চে শ্রীলঙ্কা সফরের টেস্ট স্কোয়াডেও জায়গা মেলেনি তার। করোনাভাইরাসের কারণে সিরিজটি যদিও শেষ পর্যন্ত মাঠে গড়ায়নি, স্থগিত হয়ে গেছে অনির্দিষ্টকালের জন্য।

মঈনেরও একই দশা। ফর্মহীনতার কারণে গেল বছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যাশেজ সিরিজের প্রথম টেস্টের পর বাদ পড়ে গিয়েছিলেন তিনি। দলে জায়গা হারানোর পর ইংলিশ বোর্ডের ২০১৯-২০ মৌসুমের লাল বলের কেন্দ্রীয় চুক্তিতেও ঠাঁই হয়নি তার। এরপর গেল সেপ্টেম্বর তিনি নিজেই এই সংস্করণ থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা দেন। তবে ৬০টি টেস্ট খেলা এই ক্রিকেটার গেল এপ্রিলে জানান, টেস্টে ফিরতে প্রস্তুত তিনি।

বেয়ারস্টো-মঈনের মতো স্কোয়াডে জায়গা হয়নি স্যাম কারানেরও। সম্প্রতি কোভিড-১৯ পরীক্ষায় নেগেটিভ হওয়া এই বাঁহাতি পেস-অলরাউন্ডার অবশ্য আছেন রিজার্ভ খেলোয়াড়দের তালিকাতে।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে চার মাসের যে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছিল, তা শেষ হচ্ছে ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ দিয়েই। আগামী ৮ জুলাই সাউথ্যাম্পটনে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে ও জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে শুরু হবে দুদলের প্রথম টেস্ট।

এই ম্যাচ দিয়ে যে কোনো সংস্করণের ক্রিকেটে ইংল্যান্ডকে প্রথমবারের মতো নেতৃত্ব দেবেন স্টোকস। দলটির ইতিহাসে সবচেয়ে কম অভিজ্ঞ টেস্ট অধিনায়ক হতে যাচ্ছেন এই ২৯ বছর বয়সী তারকা। দ্বিতীয় সন্তানের জন্মের সময় স্ত্রীর পাশে থাকতে প্রথম ম্যাচে খেলছেন না নিয়মিত ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট। 

ইংল্যান্ডের টেস্ট স্কোয়াড:

বেন স্টোকস (অধিনায়ক), জস বাটলার (সহ-অধিনায়ক), জোফরা আর্চার, ডমিনিক বেস, স্টুয়ার্ট ব্রড, ররি বার্নস, জেমস অ্যান্ডারসন, জ্যাক ক্রলি, জো ডেনলি, অলি পোপ, ডম সিবলি, ক্রিস ওকস, মার্ক উড।

রিজার্ভ:

জেমস ব্রেসি, স্যাম কারান, বেন ফোকস, ড্যান লরেন্স, জ্যাক লিচ, সাকিব মাহমুদ, ক্রেইগ ওভারটন, অলি রবিনসন, অলি স্টোন।

Comments

The Daily Star  | English

Afif exposing BCB’s bitter truth

Afif Hossain has been one of the most fortuitous cricketers in the national fold since his debut in February 2018.

7h ago