জাল করোনা সনদ

৫ অক্টোবর পর্যন্ত ইতালিতে নিষিদ্ধ বাংলাদেশি ফ্লাইট

করোনাভাইরাস পরীক্ষার জাল কাগজপত্র থাকার অভিযোগে ইতালি সরকার বাংলাদেশ থেকে যাওয়া সব ফ্লাইটের ওপর নিষেধাজ্ঞা আগামী ৫ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়িয়েছে। এর ফলে গত প্রায় চার মাস ধরে বাংলাদেশে আটকা পরা কয়েক হাজার বাংলাদেশি, যারা ইতালিতে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, তারা বিপাকে পরলেন।
biman bangladesh
ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাস পরীক্ষার জাল কাগজপত্র থাকার অভিযোগে ইতালি সরকার বাংলাদেশ থেকে যাওয়া সব ফ্লাইটের ওপর নিষেধাজ্ঞা আগামী ৫ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়িয়েছে। এর ফলে গত প্রায় চার মাস ধরে বাংলাদেশে আটকা পরা কয়েক হাজার বাংলাদেশি, যারা ইতালিতে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, তারা বিপাকে পরলেন।

গত ৬ জুলাই ইতালির রোমে অবতরণ করা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইটে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক যাত্রীর কোভিড-১৯ শনাক্ত হওয়ার পর ৭ জুলাই এক সপ্তাহের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল দেশটি।

করোনা শনাক্ত হওয়া ওই যাত্রীদের কাছে ‘কোভিড-১৯ নেগেটিভ’ এবং ‘ভ্রমণের জন্য নিরাপদ’ মর্মে কাগজপত্র ছিল।

৮ জুলাই ১৫১ বাংলাদেশি যাত্রীকে দেশটিতে প্রবেশ করতে দেয়নি ইতালি। বাংলাদেশ থেকে কাতার এয়ারওয়েজের একটি ট্রানজিট ফ্লাইটে ইতালি যাওয়া ওই যাত্রীদের পুনরায় ঢাকায় ফেরত পাঠানো হয়।

আজ বৃহস্পতিবার কাতার এয়ারওয়েজের দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ইতালির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুরোধে বাংলাদেশ থেকে ইতালিগামী সব ফ্লাইট/যাত্রী নিষিদ্ধ করা হয়েছে।’

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘৮ জুলাই থেকে শুরু করে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত যে কোনো দেশের নাগরিক কিংবা যে কোনো দেশ হয়ে বাংলাদেশ থেকে যাওয়া কোনো ফ্লাইট ইতালিতে অবতরণের অনুমতি পাবে না।’

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সূত্রে জানা যায়, ইতালি থেকে ফেরত পাঠানো ১৫১ বাংলাদেশি যাত্রী আজ রাতের মধ্যেই ঢাকায় ফিরতে পারেন।

গতকাল কাতার এয়ারওয়েজের এক কর্মকর্তা জানান, তারা ইতালি সরকারের এই সিদ্ধান্ত জানতেন না যে বাংলাদেশ থেকে যাওয়া কোনো যাত্রীকে ইতালিতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না।

১৫১ বাংলাদেশি যাত্রী কাতারের দোহা হয়ে ঢাকা থেকে রোমের ফিয়ামিকিনো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাচ্ছিলেন।

৭ জুলাই বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে কোভিড-১৯ নেগেটিভ সনদ থাকার পরও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক যাত্রীর করোনা শনাক্ত হওয়ায় বাংলাদেশ থেকে ছেড়ে যাওয়া কোনো ফ্লাইট অবতরণের অনুমতি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইতালি।

সম্প্রতি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স বাংলাদেশ থেকে ইতালি যাওয়ার জন্য কয়েকটি চার্টার্ড ফ্লাইট পরিচালনা করে। ইতালির বিমানবন্দরে অবতরণের পর এই ফ্লাইটগুলোর বেশ কয়েকজন যাত্রী কোভিড-১৯ সংক্রমিত বলে শনাক্ত হন।

১৬ জুন আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করার পর বাংলাদেশ সরকার কাতার এয়ারলাইন্সসহ সীমিত সংখ্যক বিদেশি এয়ারলাইন্সকে ঢাকা থেকে ট্রানজিট ফ্লাইট পরিচালনা করার অনুমতি দেয়।

এর আগে জুনে বাংলাদেশ থেকে জাপানে বিশেষ ফ্লাইট চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেয় দেশটি। বাংলাদেশ থেকে যাওয়া যাত্রীদের মধ্যে চার জনের কোভিড-১৯ পজিটিভ আসার পর তাদের সেখানেই কোয়ারেন্টিনে রাখা হয় এবং এই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

Comments

The Daily Star  | English

Maritime ports asked to hoist signal 3

Maritime ports of Chattogram, Cox's Bazar, Mongla, and Payra have been advised to hoist local cautionary signal number three lowering distant cautionary signal number in the wake of the deep depression over the North Bay, said a special weather bulletin.

1h ago