'সাউদাম্পটন টেস্টে উইন্ডিজকে অবমূল্যায়ন করেছে ইংল্যান্ড'

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে লম্বা বিরতি শেষে ক্রিকেট ফেরার পর প্রথম বিজয়ী দল উইন্ডিজ। অসাধারণ রোমাঞ্চ উপহার দিয়ে সাউদাম্পটন টেস্টে ইংল্যান্ড ৪ উইকেটে হারিয়েছে তারা। অথচ এ ম্যাচে পরিষ্কার ফেভারিট ছিল ইংল্যান্ড। তাও আবার ঘরের মাঠে খেলেছে দলটি। আর তাদের হারের কারণ নিয়ে চলছে আনান আলোচনা-সমালোচনা। সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক নাসির হোসেন মনে করছেন, ক্যারিবিয়ানদের অবমূল্যায়ন করার কারণেই এ হার।
ছবি: এএফপি

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে লম্বা বিরতি শেষে ক্রিকেট ফেরার পর প্রথম বিজয়ী দল উইন্ডিজ। অসাধারণ রোমাঞ্চ উপহার দিয়ে সাউদাম্পটন টেস্টে ইংল্যান্ড ৪ উইকেটে হারিয়েছে তারা। অথচ এ ম্যাচে পরিষ্কার ফেভারিট ছিল ইংল্যান্ড। তাও আবার ঘরের মাঠে খেলেছে দলটি। আর তাদের হারের কারণ নিয়ে চলছে আনান আলোচনা-সমালোচনা। সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক নাসির হোসেন মনে করছেন, ক্যারিবিয়ানদের অবমূল্যায়ন করার কারণেই এ হার।

সাউদাম্পটন টেস্টে ছিলেন না দলের অন্যতম সেরা পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড। ১৩৮টি টেস্ট খেলা এ পেসার বিশ্রাম দেওয়া নিয়ে অনেক সমালোচনাই হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে উইন্ডিজের বিপক্ষে অতি আত্মবিশ্বাসী ছিল ইংলিশরা। যে কারণে দলের সেরা তারকাকে বিশ্রাম দিতে কার্পণ্য করেনি তারা। আর তার ফলাফল ইংলিশরা ভোগ করছে বলেই মনে করেন নাসির।

তবে ক্যারিবিয়ানদের কৃতিত্ব দিয়ে ভুল করেন নাসির, 'ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের জন্য তাদের টুপি খোলা সালাম। কিন্তু ইংল্যান্ডকে একটা প্রশ্ন করতে চাই। যদি এটা অ্যাশেজের প্রথম ম্যাচ হতো তাহলে কি তারা স্টুয়ার্ট ব্রডকে বাইরে রাখতো? এটা আমাকে বিস্মিত করেছে তারা একটি ভুল করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। তারা তাদের অবমূল্যায়ন করেছে, উইসডেন ট্রফিটি বর্তমানে জেসন হোল্ডারের দখলে থাকা সত্ত্বেও।'

নাসিরের ধারণা ব্রড দলে থাকলে টস জেতার পর ব্যাটিং না করে ফিল্ডিং বেছে নিতেন নতুন অধিনায়ক বেন স্টোকস। আর তাহলে জয় ইংলিশরাই পেতেন বলে মনে করেন সাবেক এ অধিনায়ক, 'যদি ব্রড খেলতো, তাহলে বুধবার বোলিং বেছে নিতে পারতো স্টোকস এবং আমার বিশ্বাস তাহলে উইন্ডিজ খুব দ্রুতই অলআউট হয়ে যেত। ব্রডকে ছাড়া তসের সিদ্ধান্তটি ছিল ৫০-৫০, যেটা আমরা রোববার দেখলাম। তারা নিজেদের পছন্দটা বেছে নিতে পারলে ইংল্যান্ড জিততেও পারতো।'

ইংল্যান্ডের মাটিতে সব শেষে ১৯৮৮ সালে টেস্ট সিরিজ জিততে পেরেছিল উইন্ডিজ। এরপর ৩২ বছর হয় সে দেশে সিরিজ জিততে পারেনি তারা। যদিও ক্যারিবিয়ানদের মাটিতে দুই দলের শেষ টেস্ট সিরিজ জিতেছিল উইন্ডিজই। কিন্তু ইংল্যান্ডের মাটিতে যেন খেই হারিয়ে ফেলে দলটি। তবে এবার জেসন হোল্ডারের অধীনে দলটি যেন ভিন্ন পণ করেই নেমেছে। টেস্টের শুরু থেকেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় দলটি। যদিও চতুর্থ দিন শেষে কিছুটা এগিয়ে গিয়েছিল ইংল্যান্ড। তবে শেষ পর্যন্ত রোমাঞ্চকর টেস্টে জয় পায় ক্যারিবিয়ানরাই।

Comments

The Daily Star  | English

97pc work of HSIA third terminal complete: minister

Only three percent of work, which includes calibration and testing of various systems is yet to be completed

45m ago