সর্বোচ্চ সতর্ক না থাকলে ঈদযাত্রা অন্তিমযাত্রায় রূপ নিতে পারে: কাদের

আসন্ন কোরবানির ঈদের ছুটিতে ঢাকা থেকে বাড়ি ফেরার সময় সর্বোচ্চ সচেতনতার সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে যাত্রীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। অন্যথায়, ‘ঈদযাত্রা অন্তিমযাত্রায় রূপ নিতে পারে’ বলে সতর্ক করেন তিনি।
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ফাইল ফটো

আসন্ন কোরবানির ঈদের ছুটিতে ঢাকা থেকে বাড়ি ফেরার সময় সর্বোচ্চ সচেতনতার সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে যাত্রীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। অন্যথায়, ‘ঈদযাত্রা অন্তিমযাত্রায় রূপ নিতে পারে’ বলে সতর্ক করেন তিনি।

কাদের আজ সকালে ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের নিয়ে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) এর সদরদপ্তরে অনুষ্ঠিত ঈদ প্রস্তুতি সভায় নিজ বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এ কথা বলেন।

ঈদ নিয়ে সরকারের প্রস্তুতি সম্পর্কে তিনি বলেন, ঢাকা মহানগরীর প্রতিটি টার্মিনালে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, মালিক-শ্রমিক, সিটি করপোরেশন, বিআরটিএসহ সংশ্লিষ্ট সকল অংশীজনদের নিয়ে গঠিত টাস্কফোর্স কার্যকর থাকবে। এর পাশাপাশি যেকোনো অভিযোগ পাওয়া গেলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিতে কাজ করবে বিআরটিএর ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় জানানো হয়, আসন্ন ঈদে দূরপাল্লার বাস অর্ধেক আসন খালি রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করবে। ঢাকা শহরের বহির্গমন পয়েন্টগুলো যানজটমুক্ত রাখতে নেওয়া হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নগরীর প্রধান টার্মিনালগুলো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখবে।

ভ্রমণের আগে ও পরে পরিবহনসমূহ জীবাণুমুক্ত করার পাশাপাশি বাসে উঠার ক্ষেত্রে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। যাত্রী, গাড়ি চালক, চালকের সহকারীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরার পাশাপাশি পরিবহনসমূহ জ্বালানি সংগ্রহ ও জরুরি প্রয়োজন ছাড়া পথে কোনো যাত্রা বিরতি করতে পারবে না বলে সভায় জানানো হয়।

এসময় মন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, দেশে মহাসড়কগুলো যেকোনো সময়ের তুলনায় এখন ভাল অবস্থায় রয়েছে। অতিবৃষ্টিজনিত ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক মেরামতে ভ্রাম্যমাণ সড়ক মেরামত টিম সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রাখার জন্য সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরকে এবং যাত্রীদের চাপ নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক মোহনায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক বাস প্রস্তুত রাখার জন্য বিআরটিসি’কে মন্ত্রী নির্দেশনা দেন।

তিনি বলেন, ঈদের তিনদিন আগে থেকে মহাসড়কে ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি সার্ভিস, অত্যাবশ্যকীয় পণ্য, পচনশীল দ্রব্য, কোরবানীর পশু, জ্বালানি, ওষুধ, ত্রাণ, সংবাদপত্র ও রপ্তানিপণ্যবাহী যানবাহন এ নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত থাকবে।

সভায় বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার, বিআরটিসি’র চেয়াম্যান মো. এহছানে এলাহীসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। 

Comments

The Daily Star  | English

Lifts at public hospitals: Horror abounds

Shipon Mia (not his real name) fears for his life throughout the hours he works as a liftman at a building of Sir Salimullah Medical College, commonly known as Mitford hospital, in the capital

2h ago