শিক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো তিন শিক্ষকের রিমান্ড মঞ্জুর

শিক্ষামন্ত্রী, ইউএনওসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার চাঁদপুর সদরের ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের তিন শিক্ষককে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।
Chandpur
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

শিক্ষামন্ত্রী, ইউএনওসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার চাঁদপুর সদরের ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের তিন শিক্ষককে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার তাদের আদালতে হাজির করা হলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামাল হোসেন রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন।

এর মধ্যে ওই কলেজের আইসিটি শিক্ষক নোমান সিদ্দিকীকে (৩৫) দুই দিন, অন্য দুই শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম (৪০) ও এবিএম আনিসুর রহমানকে (৪০) একদিনের রিমান্ড আদেশ দেওয়া হয়।

মামলার আইও চাঁদপুর মডেল থানার এসআই রেজাউল করিম এটি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমরা এই তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলাম।’

পুলিশ জানায়, ওই তিন শিক্ষক বিভিন্ন সময় আয়শা খন্দকার নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কানিজ ফাতেমা, ফরক্কাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হান্নান মিজিসহ জেলা ও বালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে ফেক আইডি ব্যবহার করে অপপ্রচার চালিয়ে আসছিলেন।

গত ২৭ এপ্রিল চাঁদপুর মডেল থানায় এ নিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। পরে তদন্তকারী কর্মকর্তা চাঁদপুর মডেল থানার এসআই রেজাউল করিম তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে অভিযোগ আনলে ফরক্কাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হান্নান মিজিকে বাদী করে আইসিটি আইনে মামলা রুজু করা হয়।

ওই মামলায় আদালত তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোনায়া জারি করলে গত রোববার রাতে পুলিশ তাদের কলেজ ক্যাম্পাস থেকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে তিনটি ল্যাপটপ ও তিনটি মোবাইল জব্দ করা হয়।

অভিযুক্ত তিন জন স্থানীয় আওয়ামী লীগের সঙ্গে জড়িত। এদের মধ্যে ফরক্কাবাদ ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম বালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং নোমান সিদ্দিকী সদস্য। এছাড়া এবিএম আনিসুর রহমান ও নোমান সিদ্দিকী আপন দুই ভাই।

আরও পড়ুন:

শিক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগে চাঁদপুরে তিন কলেজ শিক্ষক গ্রেপ্তার

শিক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার: কারাগারে ৩ শিক্ষক

Comments

The Daily Star  | English
wage workers cost-of-living crisis

The cost-of-living crisis prolongs for wage workers

The cost-of-living crisis in Bangladesh appears to have caused more trouble for daily workers as their wage growth has been lower than the inflation rate for more than two years.

1h ago