কক্সবাজারে নিজেদের মধ্যে গোলাগুলিতে ৪ মাদক চোরাকারবারি নিহত

কক্সবাজার জেলার টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের নয়াপাড়া-খারাংখালী সীমান্তবর্তী এলাকায় মাদক চোরাকারবারকারী দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে চার মাদক চোরাকারবারি নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে টেকনাফ থানা পুলিশ অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করেছে।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

কক্সবাজার জেলার টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের নয়াপাড়া-খারাংখালী সীমান্তবর্তী এলাকায় মাদক চোরাকারবারকারী দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে চার মাদক চোরাকারবারি নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে টেকনাফ থানা পুলিশ অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করেছে।

নিহতরা হলেন, হোয়াইক্যং ইউনিয়নের খারাংখালী গ্রামের বাসিন্দা আব্দুস সালামের ছেলে নাছির উদ্দীন (২৩), টেকনাফ সদর ইউনিয়নের পূর্ব মহেষখালীয়া পাড়ার বাসিন্দা মৃত হাকিম মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ আনোয়ার (২৪), হোয়াইক্যং ইউনিয়নের পশ্চিম সাতঘরিয়া পাড়ার বাসিন্দা মৃত নূর মোহাম্মদের ছেলে মোহাম্মদ ইসমাইল (২৫) ও হোয়াইক্যং ইউনিয়নের আমতলীর বাসিন্দা আব্দুল মালেকের ছেলে আনোয়ার হোসেন (২২)।

এই সব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, আজ মঙ্গলবার ভোর রাত চারটার দিকে টেকনাফ হোয়াইক্যংয়ের পশ্চিম সাতঘরিয়া পাড়া এলাকায় দুই দল মাদক চোরাকারবারির মধ্যে ইয়াবার লেনদেন নিয়ে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা খবর দিলে টেকনাফ থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছালে তারা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে ছুড়তে পার্শ্ববর্তী কাঁচার পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। এ সময় পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়।

তিনি আরও জানান, একপর্যায়ে গোলাগুলি থেমে গেলে ঘটনাস্থল থেকে দুইটি দেশীয় তৈরি লম্বা বন্দুক, আট রাউন্ড গুলি ও ৫০ হাজার ইয়াবাসহ চারজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। গুলিবিদ্ধদের টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের চার জনকেই মৃত ঘোষণা করেন। তাদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

ওসি বলেন, ‘এ ঘটনায় হত্যা, মাদক ও অস্ত্র আইনের ধারায় পৃথক তিনটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। যে সময় পুলিশ মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স অবস্থান নিয়ে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে, সে সময়ে মিয়ানমার থেকে মাদক এনে তার ভাগবাটোয়ারা নিয়ে মাদক চোরাকারবারিরা নিজেদের মধ্যে সংঘাতে জড়ানো খুবই দুঃখজনক এবং তা বড় অপরাধ।’

যে সব অপরাধী এখনো মাদক চোরাকারবারির সঙ্গে জড়িত তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য স্থানীয় জনগণের সহযোগিতা কামনা করেন ওসি প্রদীপ কুমার দাশ।

Comments

The Daily Star  | English

Climate change to wreck global income by 2050: study

Researchers in Germany estimate that climate change will shrink global GDP at least 20% by 2050. Scientists said that figure would worsen if countries fail to meet emissions-cutting targets

2h ago