‘এভাবে খেললে বড় ব্যাটসম্যান হতে পারবে না বাবর’

শোয়েব আখতার মনে করেন এভাবে খেললে বড় হতে পারবেন না বাবর।
Shoaib Akhter & Babar Azam

বিরাট কোহলি, স্টিভেন স্মিথদের কাতারে বাবর আজমকে দেখতে পাচ্ছিলেন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক নাসের হুসেইন। ম্যানচেস্টার টেস্টে প্রথম দিনে তার ব্যাটিং দেখে প্রশংসায় ভাসিয়েছিলেন তিনি। তবে বাবর ওই ফিফটির পর করতে পারেননি আর কিছু। সাবেক পাকিস্তানি পেসার শোয়েব আখতার তো মনে করেন এভাবে খেললে বড় হতে পারবেন না বাবর।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে ইংল্যান্ডের কাছে ৩ উইকেটে হারে পাকিস্তান। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং ধসেই কাবু হয় তারা। টেস্টে দলের এই হারে ব্যাটসম্যানদেরই বেশি দায় দেখছেন শোয়েব। বিশেষ করে তিনি চটেছেন দলের সেরা ব্যাটসম্যান বাবরের উপর।

শান মাসুদের ১৫৬ আর বাবরের ৬৯ রানে প্রথম ইনিংসে পাকিস্তান করেছিল ৩২৬ রান। বোলাররা ইংল্যান্ডকে ২১৯ রান গুটিয়ে দিয়ে দলকে এনে দিয়েছিলেন ১০৭ রানের লিড।

ওই লিড নিয়েও দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ১৬৯ রান করতে পারে পাকিস্তান। ২৭৭ রানের লক্ষ্য পেয়ে ইংল্যান্ড ঢের পিছিয়ে থেকেও ম্যাচ জিতে যায়।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে হারের ময়নাতদন্ত করতে গিয়ে শোয়েব কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন ব্যাটসম্যানদের,  ‘লিড বড় করার সুযোগ ছিল পাকিস্তানের। কিন্তু তারা ভুলই করে গেছে। এরকম ভুল তারা যুগ যুগ ধরেই করছে। আমি বলব ব্যাটিং দলকে ডুবিয়েছে। দরকার ছিল জুটি গড়া, বাজে বল পেলে মারা। ৩৫০-৪০০ রানের লক্ষ্য দেওয়ার অবস্থা ছিল।’

দ্বিতীয় ইনিংসে বাবর আউট হন মাত্র ৫ রান করে। অধিনায়ক আজহার আলি করেন ১৮, আসাদ শফিক রান আউটে কাটা পড়েন ২৯ রানে। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৩ রান আসে লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহর ব্যাট থেকে।

শোয়েব তাই সমালোচনায় মুখর ব্যাটসম্যানদেরই। বিশেষ করে বাবর আজমের পারফরম্যান্সের মূল্যায়ন করেছেন কঠোরভাবে,  ‘পাকিস্তানের তারকা বনে যাওয়া ব্যাটসম্যানদের কেউই দ্বিতীয় ইনিংসে রান পায়নি। বড় ক্রিকেটার হতে হলে নিজেকে আসল সময়ে মেলে ধরতে হয়। ১০৭ রানের লিড কাজে লাগিয়ে বড় লক্ষ্য দিতে না পারলে সে যত বড় ব্যাটসম্যানই হোক কোন কাজের না।’

‘শান মাসুদের ভাগ্য খারাপ। তবে এই ম্যাচে সে তার ভূমিকা প্রথম ইনিংসে পালন করেছে। বাবর আজমের উচিত ছিল ভাল কিছু দেওয়া, এভাবে খেললে আসলে নিজের নাম করতে পারবে না, বড় ক্রিকেটার হতে পারবে না। ভালো ক্রিকেটার হতে পারে। কিন্তু ম্যাচ জেতানো ক্রিকেটার হয়ে উঠা আলাদা বিষয়।’

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal makes landfall

The eye of the cyclonic storm is scheduled to cross Bangladesh between 12:00-1:00am after which the cyclone is expected to weaken

5m ago