বাফুফে নির্বাচন আগামী ৩ অক্টোবর, সরকার ও ফিফার অনুমোদন সাপেক্ষে

স্থগিত হয়ে যাওয়া বহুল প্রতীক্ষিত নির্বাচনের জন্য একটি অস্থায়ী তারিখ নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।
BFF

স্থগিত হয়ে যাওয়া বহুল প্রতীক্ষিত নির্বাচনের জন্য একটি অস্থায়ী তারিখ নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। আগামী ৩ অক্টোবর ভোটগ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মাঝেই গেল ২০ এপ্রিল নির্বাচন আয়োজন করতে চেয়েছিল বাফুফে। কিন্তু তীব্র সমালোচনার মুখে গেল ২৮ মার্চ তা স্থগিত করা হয় অনির্দিষ্টকালের জন্য। এর প্রায় সাড়ে চার মাস পর মঙ্গলবার কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে নতুন তারিখ নির্ধারণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বাফুফে ভবনে বৈঠক শেষে সংস্থাটির সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাম মুর্শেদী বলেছেন, ‘আমরা প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, আগামী ৩ অক্টোবর বার্ষিক সাধারণ সভা ও নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে হোটেল সোনারগাঁওয়ে। মোট ১৩৯ জনকে ভোটার হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। তারাই ভোট দেয়ার যোগ্যতা পাবেন।’

তিনি যোগ করেছেন যে, বার্ষিক সাধারণ সভা এবং নির্বাচন আয়োজনের সর্বশেষ এই সিদ্ধান্ত সম্পর্কে জানাতে আবার তারা ফিফাকে চিঠি দেবেন।

বাফুফের সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ মহি জানিয়েছেন, বাংলাদেশ সরকার যদি অনুমতি দেয় এবং নির্বাচন নিয়ে ফিফার কোনো আপত্তি না থাকে, তবে ৩ অক্টোবরই হবে বার্ষিক সাধারণ সভা এবং নির্বাচনের চূড়ান্ত তারিখ।

গতকাল সোমবার ১০টি শর্তে সীমিত পরিসরে খেলাধুলা ও অনুশীলন কার্যক্রম ফের চালুর অনুমতি দিয়েছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ তাই ফিফার কাছ থেকে অনুমোদন পেতে আশাবাদী, ‘বাংলাদেশে সবকিছু খুলে দেওয়া হয়েছে এবং পুরোদমে অফিস চলছে, দুটি সংসদীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং সরকার গতকাল সীমিত আকারে ক্রীড়া কার্যক্রম শুরু করারও অনুমোদন দিয়েছে।’

বাদল রায়, ফজলুর রহমান বাবুল ও শেখ মোহাম্মদ আসলাম বাদে বাকি সব কার্যনির্বাহী সদস্য সরাসরিভাবে বা ভার্চুয়াল মাধ্যমে বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন। কিন্তু আগামী ২০২০-২১ মৌসুম পুনরায় শুরু করার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া যায়নি।

বৈঠকে আগামী নভেম্বর-ডিসেম্বরে নারী ফুটবল লিগ আবার শুরু করার বিষয়ে কথা হয়েছে। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে নারী ফুটবল কমিটি আলোচনায় বসবে ক্লাবগুলোর সঙ্গে।

অবশেষে এই বৈঠকে বাফুফের ২০১৯ সালের আয়-ব্যয়ের হিসাব অনুমোদন করা হয়েছে, যেখানে ৩৬ কোটি ৩০ লাখ টাকা আয়ের বিপরীতে ব্যয় হয়েছে ৩৭ কোটি ৯০ কোটি টাকা। পাশাপাশি ২০২১ সালের জন্য আনুমানিক ৫২ কোটি ৩১ লাখ টাকার বাজেটও পাশ হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

New School Curriculum: Implementation limps along

One and a half years after it was launched, implementation of the new curriculum at schools is still in a shambles as the authorities are yet to finalise a method of evaluating the students.

7h ago