পরিসংখ্যান: আতালান্তার বিপক্ষে ইতিহাস গড়তে হবে পিএসজিকে

ইতালিয়ান ক্লাবগুলোর বিপক্ষে ফরাসি লিগ চ্যাম্পিয়নদের অতীত পরিসংখ্যান ভীষণ হতাশাজনক- নেই কোনো জয়।
mbappe and neymar
ছবি: এএফপি

এক লেগের লড়াই। ভুল করলেই ছিটকে যেতে হবে। ঘুরে দাঁড়ানোর বিকল্প পথ নেই। এই সমীকরণ মাথায় রেখে নবাগত আতালান্তার মুখোমুখি হতে যাচ্ছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। ইতালিয়ান ক্লাবগুলোর বিপক্ষে ফরাসি লিগ চ্যাম্পিয়নদের অতীত পরিসংখ্যান ভীষণ হতাশাজনক- নেই কোনো জয়। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে উঠতে হলে তাই ইতিহাস গড়তে হবে নেইমার-কিলিয়ান এমবাপেদের।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত একটায় আসরের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে মাঠে নামছে ইতালির আতালান্তা ও ফ্রান্সের পিএসজি। ম্যাচের ভেন্যু পর্তুগালের রাজধানী লিসবনের এস্তাদিও দা লুজ।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এবার পাল্টে গেছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের আদল। সময় স্বল্পতায় লিসবনের দুটি স্টেডিয়ামে আয়োজিত হচ্ছে আট দলের এক লেগের মিনি টুর্নামেন্ট। কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনালে দলগুলো কেবল একবার করে একে অপরের মুখোমুখি হবে। অর্থাৎ থাকছে না কোনো ‘হোম-অ্যাওয়ে’ পদ্ধতি।

এবারের আসরের চমক জাগানো দল আতালান্তা শেষ ষোলোতে বিদায় করেছে ভ্যালেন্সিয়াকে। আধিপত্য দেখিয়ে দুই লেগ মিলিয়ে স্প্যানিশ ক্লাবটির বিপক্ষে ৮-৪ গোলে জিতেছে তারা। অন্যদিকে, জার্মান ক্লাব বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের কাছে প্রথম লেগে ২-১ ব্যবধানে হেরেও উতরে গেছে পিএসজি। দ্বিতীয় লেগে তারা জিতেছিল ২-০ গোলে। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ গোলের অগ্রগামিতায় কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ঘরোয়া ‘ট্রেবল’ (ফরাসি লিগ, ফরাসি কাপ ও ফরাসি লিগ কাপ) জেতা দলটি।

atalanta
ছবি: এএফপি

পরিসংখ্যান যা বলছে:

১. চলতি মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অভিষেক হয়েছে ইতালিয়ান দল আতালান্তার। দুর্দান্ত ফুটবল খেলে প্রথমবারেই সাড়া ফেলেছে তারা। তাদের সামনে এবার প্রথমবারের মতো আসরের সেমিফাইনালে ওঠার হাতছানি।

২. প্রথমবারের মতো কোনো প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে দল দুটি। ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় অতীতে কেবল একবারই কোনো ফরাসি ক্লাবের বিপক্ষে খেলেছিল আতালান্তা। অলিম্পিক লিঁওর মাঠে ১-১ গোলে ড্র করার পর নিজেদের মাঠে ১-০ গোলে জিতেছিল তারা।

৩. ২০১৫-১৬ মৌসুমের পর প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টারে জায়গা করে নিয়েছে পিএসজি। আগের তিন আসরে টানা তারা বাদ পড়েছিল শেষ ষোলোতে। আর শেষবার প্যারিসিয়ানরা সেমিতে উঠেছিল ১৯৯৪-৯৫ মৌসুমে। ওই আসরে ইতালিয়ান পরাশক্তি এসি মিলানের কাছে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-০ গোলে হেরেছিল তারা।

৪. চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ইতালিয়ান ক্লাবগুলোর বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ছয় ম্যাচ খেলে একটিতেও জয় পায়নি পিএসজি। তারা ড্র করেছে চারটি, হেরেছে দুটিতে। একটি ম্যাচেও জাল অক্ষত রাখতে পারেনি দলটি।

Comments