খেলা

স্বাস্থ্যবিধি ভেঙ্গে বাধ্যতামূলক আইসোলেশনে হাফিজ

সাউদাম্পটনের এজিয়েস বৌলের গলফ কোর্সে এক ৯০ বছর বয়েসী বৃদ্ধার সঙ্গে ছবি তুলেছিলেন হাফিজ
যে ছবির কারণে আইসোলেশনে যেতে হলো হাফিজকে। ছবি: টুইটার

জৈব-সুরক্ষিত বিধি ভাঙ্গায় পাকিস্তানের মোহাম্মদ হাফিজকে বাধ্যতামূলক ‘আইসোলেশনে’ পাঠানো হয়েছে। সাউদাম্পটনে দ্বিতীয় টেস্টের আগের দিন এক বৃদ্ধ ভক্তের সঙ্গে ছবি তোলে টুইটারে পোস্ট করেছিলেন তিনি।

সাউদাম্পটনের এজিয়েস বৌলের গলফ কোর্সে এক ৯০ বছর বয়েসী বৃদ্ধার সঙ্গে ছবি তুলেছিলেন হাফিজ। সেই ছবি পরে তিনি টুইটারে পোস্ট করেন। এতে ইসিবির জৈব-সুরক্ষিত বিধির ধারা ভঙ্গ হয়।

বিবৃতিতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছে, এই ঘটনা জানার পরই অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারকে হোটেল রুমে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী এখন হাফিজের আরেকবার কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হবে। নতুন পরীক্ষায় ফল নেগেটিভ আসা পর্যন্ত হোটেল রুমেই বন্দি থাকতে হবে তাকে।

এইজেস বৌলের গলফ কোর্সটি ক্রিকেটারদের ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হলেও নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখতে বলা হয়েছিল। কারণ কোর্সটি এখন জনসাধারণের জন্যও উন্মুক্ত। হাফিজ সেই নিয়ম না মেনে একজন জনসাধারণের সঙ্গে ছবি তুলেন।

‘আজ সকালে হোটেল সংলগ্ন গলফ কোর্সে গিয়েছিলেন হাফিজ। সেখানে তিনি এক জনসাধারণের সঙ্গে ছবি তুলে স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করেছেন। ইসিবির নিয়মের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে তাকে তাই আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে।’- বিবৃতিতে জানায় পিসিবি।

ইংল্যান্ডে আসার আগে সব ক্রিকেটারের করোনা পরীক্ষা করিয়েছিল পিসিবি। প্রথম দফার পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছিল হাফিজও। পরে নিজ উদ্যোগে একবার করোনা পরীক্ষা করিয়ে নেগেটিভ হন তিনি। এতে তাকে তিরস্কারও করা হয়। এরপর আরও টানা দুইবার কোভিড-১৯ পরীক্ষায় নেগেটিভ হয়ে তবেই ইংল্যান্ডের আসার ছাড়পত্র মিলে এই অলরাউন্ডারের।

পাকিস্তানের টেস্ট দলে অবশ্য হাফিজ নেই। ২৮ অগাস্ট থেকে শুরু হতে যাওয়া তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে আছেন তিনি।

করোনাভাইরাস মহামারির থাবা সামলে কঠোর বিধি নিষেধ মেনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরিয়েছে ইংল্যান্ড। সিরিজ চলাকালীন ক্রিকেটারদের বাইরে কোন ব্যক্তির সংস্পর্শের আসারই নিয়ম নেই। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আগের সিরিজে এমন একটি বিধি ভেঙ্গে এক টেস্ট নিষিদ্ধ হয়েছিল ইংল্যান্ডের পেসার জোফরা আর্চার। তাকে ক্ষমা চেয়ে ফের দলে আসতে হয়।

Comments

The Daily Star  | English

MV Abdullah passing through high-risk piracy area

Precautionary safety measures in place, Italian Navy frigate escorting it

45m ago