ধোনির জার্সি তুলে রাখার আহ্বান সতীর্থ-ভক্তদের

ফুটবলে প্রচলন থাকলেও ক্রিকেটে জার্সি তুলে রাখার ঘটনা তেমন চোখে পড়ে না।
dhoni
ছবি: এএফপি

মহেন্দ্র সিং ধোনির প্রতি সম্মান জানিয়ে তার সাত নম্বর জার্সি তুলে রাখতে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিসিআই) অনুরোধ করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়ার ঘোষণা দেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী সাবেক এই অধিনায়ক। বিদায়ী বার্তায় তিনি লিখেন, ‘আপনাদের এত দিনের ভালোবাসা ও সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ। (শনিবার) সন্ধ্যা ৭টা ২৯ মিনিট থেকে আমাকে অবসরপ্রাপ্ত ধরে নিন।’

এরপর থেকে ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রামসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নতুন করে শুরু হয়েছে ধোনির গুণকীর্তন। অগণিত ভক্তের পাশাপাশি তার সাবেক সতীর্থ দিনেশ কার্তিকও বলেছেন, অন্য কোনো ভারতীয় ক্রিকেটারের জার্সির পিছনে সাত লেখা দেখতে চান না তারা।

এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান টুইট করেছেন, ‘আমি আশা করি, বিসিসিআই সাদা বলের (সীমিত ওভারের) ক্রিকেটে সাত নম্বর জার্সিটি তুলে রাখবে। জীবনের দ্বিতীয় ইনিংসের জন্য (ধোনিকে) শুভকামনা। আমি নিশ্চিত যে, সেখানেও আমাদের জন্য অনেক চমক রেখে দিয়েছেন আপনি।’

কার্তিকের বক্তব্যের সমর্থনে সাবেক ভারতীয় ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ কাইফ লিখেছেন, ‘ভারতের হয়ে আবারও কারও সাত নম্বর জার্সি পরার কথা কল্পনাও করতে পারি না।’

টুইটারেই ধোনির এক পাঁড় ভক্তের আকুতি, ‘এমএস ধোনির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিসিসিআইয়ের উচিত সাত নম্বর জার্সি তুলে রাখা।’

আরেক ভক্ত লিখেছেন, ‘সাত নম্বর জার্সি তুলে রাখা হোক। কেবল সাত নম্বরটির জন্য নয়। কারণ এটা এমন একটা আবেগ যার অভাব আমাদের দেশ বোধ করবে।’ 

ফুটবলে প্রচলন থাকলেও ক্রিকেটে জার্সি তুলে রাখার ঘটনা তেমন চোখে পড়ে না। তবে অবসর যাওয়ার কয়েক বছর পর ভারতের কিংবদন্তি তারকা শচীন টেন্ডুলকারের দশ নম্বর জার্সিটি তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিসিআই। গেল ২০১৭ সালে এই সম্মাননা পান তিনি।

১৬ বছরের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান ধোনি ভারতকে এনে দিয়েছেন অজস্র সাফল্য। তার নেতৃত্বে ২০০৭ সালে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। চার বছর পর ঘরের মাটিতে দলকে ওয়ানডে বিশ্বকাপের শিরোপা জেতান তিনি। ২০১৩ সালে ধোনির অধিনায়কত্বে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিও ঘরে তোলে ভারত। নেতৃত্ব দিয়ে আইসিসির তিন তিনটি টুর্নামেন্ট জেতার আর কোনো নজির নেই।

২০১৪ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরের পর টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বলেন ধোনি। এরপর ২০১৭ জালের জানুয়ারিতে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব তিনি ছেড়ে দেন বিরাট কোহলির হাতে।

অবসরের ঘোষণা দেওয়ায় ৩৫০তম ওয়ানডেই হয়ে থাকল ধোনির শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। গেল বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে যাওয়া ম্যাচে তার ব্যাট থেকে এসেছিল ৫০ রান।

Comments

The Daily Star  | English
Will the Buet protesters’ campaign see success?

Ban on student politics: Will Buet protesters’ campaign see success?

One cannot help but note the irony of a united campaign protesting against student politics when it is obvious that student politics is very much alive on the Buet campus

8h ago