গণপরিবহনে পূর্বের ভাড়ায় পূর্ণ আসনে যাত্রী নিতে চায় মালিক সমিতি

করোনা পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে গেছে উল্লেখ করে বাসে পূর্ণ আসনে যাত্রী নেওয়ার দাবি জানিয়েছে সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। এ দাবি পূরণ হলে যাত্রীদের কাছে আগের ভাড়া নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তারা। আর এ দাবিতে সমর্থন জানিয়েছে পরিবহন শ্রমিক সমিতি।
ছবি: আমরান হোসেন

করোনা পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে গেছে উল্লেখ করে বাসে পূর্ণ আসনে যাত্রী নেওয়ার দাবি জানিয়েছে সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। এ দাবি পূরণ হলে যাত্রীদের কাছে আগের ভাড়া নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তারা। আর এ দাবিতে সমর্থন জানিয়েছে পরিবহন শ্রমিক সমিতি।

আজ বুধবার রাজধানীর বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) সদর দপ্তরে গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধির প্রয়োগের বিষয়ে এক বৈঠকে পরিবহন নেতারা এ প্রস্তাব করেন।

দাবিটি এমন সময়ে এলো যখন তাদের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ উঠছে এবং কোভিড-১৯ সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে।

বৈঠক শেষে বিআরটিএ চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, ‘তাদের প্রস্তাব সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে পাঠালে, পরে তা মন্ত্রীপরিষদ বিভাগে পাঠানো হবে।’

মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ ৩১ আগস্ট পর্যন্ত সীমিত আকারে গণপরিবহন পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানান তিনি।

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ২৬ মার্চ থেকে সরকার গণপরিবহন চলাচল স্থগিত করেছিল। দুই মাসেরও বেশি সময় বন্ধ থাকার পর পরিবহন নেতাদের দাবির প্রেক্ষিতে গত ১ জুন ৬০ শতাংশ ভাড়া বৃদ্ধি করে বাস ও মিনিবাসসহ গণপরিবহন চালু হয়। তবে, শর্ত দেওয়া হয় মোট আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে পারবে গণপরিবহন।

বিআরটিএ কর্মকর্তারা জানান, ২২ জুলাই থেকে ১২ আগস্টের মধ্যে বিআরটিএ এর ভ্রাম্যমাণ আদালত ১০০টিরও বেশি পরিবহনের বিরুদ্ধে ৭৮৭টি মামলা দায়ের করেছে। এসবের বেশিরভাগই ছিল স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন এবং যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের জন্য।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বিভিন্ন সময় যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ব্যবস্থা নিতে বলেছিলেন। মন্ত্রণালয় জুন মাসে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনকারী পরিবহনের নিবন্ধন ও রুট পারমিট বাতিলের নির্দেশ দেয় বিআরটিএকে।

তবে, পরিস্থিতির তেমন উন্নতি হয়নি বরং কোরবানির ঈদের ছুটির পর আরও খারাপ হয়েছে বলে যাত্রী ও পরিবহন সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

আজ এ বৈঠকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি মশিউর রহমান রাঙ্গা, মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহসহ বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal makes landfall

The eye of the cyclonic storm is scheduled to cross Bangladesh between 12:00-1:00am after which the cyclone is expected to weaken

22m ago