গাজীপুরে স্বামীকে ডিভোর্স দেওয়ায় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী আটক

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে স্বামীকে ডিভোর্স দেওয়ায় স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার মাটিকাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে স্বামীকে ডিভোর্স দেওয়ায় স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার মাটিকাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সালমা গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার বেলতলী এলাকার শাহ আলমের মেয়ে। পুলিশ অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করেছে।

কালিয়াকৈর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবু সাঈদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, লিটনের সঙ্গে প্রায় ৯ বছর আগে পাশের গ্রামের সালমা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের মাত্র ১৫ দিন পরই পারিবারিক কলহের কারণে সালমা আক্তার স্বামী লিটনকে ডিভোর্স দেন। পরবর্তীতে স্বামী লিটনের পরিবার তাকে বুঝিয়ে আবারও তাদের বিয়ে দেয়। বিয়ের পর তারা দুজনেই গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মাটিকাটা এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে চাকরি করতেন। সালমা আক্তার ছিলেন স্থানীয় একটি কারখানার শ্রমিক আর লিটন মৌচাক জেনারেল ফার্মাসিউটিক্যালস কারখানায় চাকরি করতেন।

তিনি আরও জানান, পারিবারিক কলহের কারণে আবারও কয়েক মাস আগে সালমা আক্তার তার স্বামীকে ডিভোর্স দেন। এরপর থেকে তারা আলাদা বসবাস করে চাকরি করে আসছিলেন। কিন্তু, একমাস আগে লিটনের চাকরি চলে যায়। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে ধারালো ছুরি নিয়ে লিটন সালমার ভাড়া বাসায় যান এবং তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান। তার চিৎকারে আশপাশের মানুষ তাকে উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সালমাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এসআই আবু সাঈদ বলেন, ‘নিহতের শরীরের একাধিক স্থানে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন আছে। কালিয়াকৈর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে অ্যাপেক্স ল্যানজারি লিমিটেডের পাশ থেকে অভিযুক্ত স্বামী লিটন মিয়াকে আটক করে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।’

Comments

The Daily Star  | English

Hiring begins with bribery

UN independent experts say Bangladeshi workers pay up to 8 times for migration alone due to corruption of Malaysia ministries, Bangladesh mission and syndicates

36m ago