ইউএনও ওয়াহিদার শঙ্কা কাটছে, তবে চিন্তার কারণ শরীরের প্যারালাইজড অংশ: ডা. বদরুল হক

হামলার শিকার দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম পুরোপুরি না হলেও অনেকটাই শঙ্কামুক্ত হয়ে উঠছেন। আমরা এখন আশাবাদী হয়ে বলতে পারছি, তিনি হয়তো সুস্থ হয়ে উঠবেন। কিন্তু চিন্তার বিষয়, তার শরীরের ডান অংশ প্যারালাইজড হয়ে গেছে। ফলে তার স্বাভাবিক জীবনে ফেরা বেশ সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। কত সময় লাগবে তা নিশ্চিত করে বলা যায় না। জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।
Wahida Khanam
ইউএনও ওয়াহিদা খানম। ছবি: সংগৃহীত

হামলার শিকার দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম পুরোপুরি না হলেও অনেকটাই শঙ্কামুক্ত হয়ে উঠছেন। আমরা এখন আশাবাদী হয়ে বলতে পারছি, তিনি হয়তো সুস্থ হয়ে উঠবেন। কিন্তু চিন্তার বিষয়, তার শরীরের ডান অংশ প্যারালাইজড হয়ে গেছে। ফলে তার স্বাভাবিক জীবনে ফেরা বেশ সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। কত সময় লাগবে তা নিশ্চিত করে বলা যায় না। জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

আজ শনিবার বিকালে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরো সায়েন্সেস ও হাসপাতালের যুগ্ম পরিচালক অধ্যাপক ডা. বদরুল হক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘ইউএনও ওয়াহিদা খানমের শারীরিক অবস্থা কালকের চেয়ে আজ আরেকটু উন্নতি হয়েছে। তার অনুভূতি কাজ করছে, তিনি সাড়া দিতে পারছেন। কয়েকবার পানি খেতে চেয়েছেন, তাকে পানি খেতে দেওয়া হয়েছে। তার অপারেশন ভালো হয়েছে এবং রোগী হিসেবে তিনি অনেক সহযোগিতা করেছেন।’

‘ঘটনার এই পর্যায়ে এসে এখন আমরা বলতে পারছি যে, তিনি হয়তো শঙ্কামুক্ত হয়ে উঠছেন। তার আঘাতটা অত্যন্ত গুরুতর ছিল এবং অপারেশন ও চিকিৎসা খুব ভালো হয়েছে। যে কারণে আমরা এখন এ কথা বলতে পারছি’, যোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘এর বাইরে আরেকটি বিষয় হলো- এখন তিনি সুস্থ হয়ে উঠলেও, তার স্বাভাবিক জীবনে ফেরা বহু সময়ের ব্যাপার। কারণ তার মুখ থেকে পায়ের নখ পর্যন্ত শরীরের ডান অংশ এখনো প্যারালাইজড অবস্থায় আছে।’

‘তবে তার মস্তিষ্কে আঘাতের যে চিকিৎসা হয়েছে, সেই স্থানের উন্নতি হচ্ছে। প্রথম দিনের চেয়ে আজ আরেকটু উন্নতি হয়েছে, আগামীকাল হয়ত আরও উন্নতি হবে বলে আশা করছি। কিন্তু শরীরের যে অংশটি প্যারালাইজড হয়ে আছে, সেই অংশটির স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে বহু সময় লাগবে। ধীরে ধীরে সেটি হয়ত স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরবে। তবে কবে ফিরবে, তা এখনই বলা সম্ভব নয়’, বলেন তিনি।

এই প্যারালাইজড হওয়ার কারণ কী, কেন এমন হয়?

প্রশ্নের উত্তরে ডা. বদরুল হক বলেন, ‘যখন এ ধরনের আঘাত আসে, তখন মাথার ভেতরে মস্তিষ্কের সবকিছু তছনছ হয়ে যায়। এ কারণে কোনো কেনো ক্ষেত্রে শরীরের একাংশ প্যারালাইজড হয়ে যায়। এক্ষেত্রে তেমন কিছুই ঘটেছে। এর চিকিৎসা অত্যন্ত সময়সাপেক্ষ। তিনি মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ ও অপারেশনের পরবর্তী চিকিৎসায় যেভাবে সাড়া দিচ্ছেন, যেভাবে সুস্থ হয়ে উঠছেন, আমরা আশা করছি যে, তিনি হয়তো সুস্থ হয়েই উঠবেন। কিন্তু তার স্বাভাবিক জীবনযাপনে ফেরা অনেক দীর্ঘ সময়ের ব্যাপার।’

আরও পড়ুন:

ইউএনও ওয়াহিদার ওপর হামলা পরিকল্পিত, বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়: বিএএসএ

ইউএনও ওয়াহিদার শারীরিক অবস্থার উন্নতি

ইউএনও’র ওপর হামলার প্রধান আসামি আসাদুল হাসপাতালে

‘ইউএনও ওয়াহিদার আংশিক জ্ঞান ফিরেছে’

ইউএনও ওয়াহিদা স্বামীকে চিনতে পারছেন, তবে এখনো শঙ্কামুক্ত নন: ডা. বদরুল হক

ইউএনওর ওপর হামলার ঘটনায় ৩ জনের দায় স্বীকার

ইউএনওর ওপর হামলার ঘটনায় আরও ১ জন আটক

ইউএনও ওপর হামলা: আটক ২

যুবলীগ নেতাসহ আটক ৩

যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীরকে বহিষ্কার

‘ইউএনও ওয়াহিদার শরীরের ডান অংশ প্যারালাইজড হয়ে গেছে’

ইউএনও ওয়াহিদার অস্ত্রোপচার সফল, তবে শঙ্কামুক্ত নন

ইউএনও ওয়াহিদার অস্ত্রোপচার চলছে

ঢাকায় নিউরোসায়েন্স হাসপাতালের আইসিইউতে ঘোড়াঘাটের ইউএনও

ঢাকায় আনা হচ্ছে হামলায় আহত ইউএনওকে

ঘোড়াঘাট ইউএনওর বাসভবনে হামলা

 

Comments

The Daily Star  | English
MP Azim’s body recovery

Feud over gold stash behind murder

Slain lawmaker Anwarul Azim Anar and key suspect Aktaruzzaman used to run a gold smuggling racket until they fell out over money and Azim kept a stash worth over Tk 100 crore to himself, detectives said.

10h ago