নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণ: বিদ্যুৎ মিস্ত্রি গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জের বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় এবার মোবারক হোসেন (৩৫) নামে এক বিদ্যুৎ মিস্ত্রিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। আজ রোববার সকালে সদর উপজেলার পশ্চিম তল্লা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
ফাইল ফটো

নারায়ণগঞ্জের বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় এবার মোবারক হোসেন (৩৫) নামে এক বিদ্যুৎ মিস্ত্রিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। আজ রোববার সকালে সদর উপজেলার পশ্চিম তল্লা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সিআইডি নারায়ণগঞ্জের পরিদর্শক বাবুল হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘তদন্তে পাওয়া গেছে মসজিদে একটি বৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ রয়েছে। এ ছাড়া, আরেকটি অবৈধ সংযোগ আছে। আর অবৈধ সংযোগটি দিয়েছে বিদ্যুৎ মিস্ত্রি মোবারক হোসেন। তিনি বিদ্যুৎ বিভাগের কোনো কর্মচারী না। যার জন্য তাকে মসজিদের বিস্ফোরনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ অবৈধ সংযোগ না থাকলে বিদ্যুতের স্পার্ক হতো না। এ অবৈধ সংযোগ দেওয়ার পেছনে আর কারা জড়িত আছে, তা জানতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মোবারকের পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে তাকে আদালতে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় যাদের গাফিলতি ও অবহেলার সম্পৃক্ততা থাকবে, তাদেরই গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।’

উল্লেখ্য, গত ৪ সেপ্টেম্বর রাত পৌনে ৯টায় সদর উপজেলার পশ্চিম তল্লা এলাকায় বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, শিক্ষার্থী, সাংবাদিক ও শিশু সহ ৩৯ জন দগ্ধ হয়। তাদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা প্লাস্টিক সার্জারি ও বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। এখন পর্যন্ত বিস্ফোরণে দগ্ধদের মধ্যে ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আইসিইউতে চিকিৎসাধীন চার জন। 

এ ঘটনায় ৫ সেপ্টেম্বর ফতুল্লা থানার এসআই হুমায়ন কবির বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে ফতুল্লা থানায় মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে মামলাটির তদন্ত ভার দেওয়া হয় সিআইডিকে। যার পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৯ সেপ্টেম্বর সকালে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ফতুল্লা অঞ্চলের সাময়িক বহিস্কৃত আট কর্মকর্তা কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করে দুই দিনের রিমান্ডে নেয় সিআইডি।

Comments