রাজধানীর কুকুর স্থানান্তরের রিট আবেদনের শুনানি মুলতবি

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) কুকুর স্থানান্তরিত করার ব্যবস্থাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে করা একটি রিট আবেদনের শুনানি আগামী ৬ অক্টোবর পর্যন্ত মুলতবি রেখেছেন হাইকোর্ট।
high court
স্টার ফাইল ফটো

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) কুকুর স্থানান্তরিত করার ব্যবস্থাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে করা একটি রিট আবেদনের শুনানি আগামী ৬ অক্টোবর পর্যন্ত মুলতবি রেখেছেন হাইকোর্ট।

আজ রোববার রিট আবেদন দায়েরকারীদের আইনজীবী সাকিব মাহবুব এবং অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজার আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত শুনানি স্থগিত রাখেন। তারা জানান, ডিএসসিসির মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস আগামী মঙ্গলবার রিট আবেদনকারী ও অন্যদের সঙ্গে বৈঠক করে কুকুর স্থানান্তরের বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে চেষ্টা করছেন।

রিট আবেদনের শুনানির আগে বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর হাইকোর্ট বেঞ্চের কাছে বৈঠকের ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করার আবেদন করেন আইনজীবীরা।

জনস্বার্থে জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান এবং প্রাণী কল্যাণমূলক সংস্থা অভয়ারণ্য ও পিপল ফর এনিমাল ওয়েলফেয়ার গত ১৭ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের কাছে এই রিট আবেদন জমা দেন। যাতে করে ঢাকার কুকুরগুলোকে স্থানান্তরিত করে মাতুয়াইলের ল্যান্ডফিল্ডে রেখে আসার ডিএসসিসির কার্যক্রম বন্ধ করা হয়।

আবেদনে তারা ডিএসসিসি গৃহীত ব্যবস্থার বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ জানান। সেই সঙ্গে এই সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তার ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য সরকার ও ডিএসসিসিকে জবাব দেওয়ার নির্দেশ দিতে আহ্বান জানানো হয় আবেদনে।

আবেদনের বরাত দিয়ে আবেদনকারীদের আইনজীবী ব্যারিস্টার সাকিব মাহবুব দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, প্রাণী কল্যাণ আইন, ২০১৯ এর ধারা-৭ অনুযায়ী মালিকবিহীন কোনো প্রাণী নিধন বা অপসারণ করা যাবে না।

তিনি জানান, ডিএসসিসির মৌখিক আদেশের টিএসসি এবং ধানমন্ডি এলাকার কুকুরগুলো স্থানান্তর করা হয়েছে।

ডিএসসিসির ভেটেরিনারি অফিসার ডা. শফিকুল ইসলাম জানান, তারা ধানমন্ডি ও টিএসসি এলাকা থেকে কিছু কুকুর সরিয়ে মাতুয়াইলে রেখেছেন, কারণ কুকুরগুলো ‘সমস্যা তৈরি করছে’ এবং সেগুলোর বিরুদ্ধে ‘অভিযোগ’ ছিল।

আরও পড়ুন: কুকুর অপসারণ বন্ধে জয়া আহসান ও ২ সংগঠনের হাইকোর্টে রিট

Comments

The Daily Star  | English

Dos and Don’ts during a heatwave

As people are struggling, the Met office issued a heatwave warning for the country for the next five days

1h ago